হোটেল থেকে প্রকাশ্য রাস্তা! দেখুন কীভাবে রমরমিয়ে চলছে দেহ ব্যবসা

Feature Image

 

উত্তর প্রদেশে মরমিয়ে চলছে দেহ ব্যবসা৷ রাস্তার ধারে হোক কিংবা রেস্তোরার কেবিনে অবলীলায় চলছে দেহ ব্যবসা৷

উত্তর প্রদেশের কানপুর শহর বর্তমানে খবরের শিরোনামে৷ কানপুরের নবাবগঞ্জ এলাকার দুটি রেস্তোরায় হানা দিয়ে শুক্রবার দুপুরে চার প্রমিযুগল কে আপত্তিজনক অবস্থায় গ্রেফতার করে পুলিশ আধিকারিকরা৷ এছাড়াও ঘটনাস্থল থেকে পর্নোগ্রাফির বই, কন্ডোম ও আপত্তিজনক জিনিষ উদ্ধার করা হয়৷

পুলিশ সূত্রে খবর দুপুরে এই দুই রেস্তোরায় পুলিশ আধিকারিকেরা একসঙ্গে হানা দিলে যুবক-যুবতীরা পালাতে শুরু করে৷ একটি রেস্তোরা থেকে তিন যুবক ও তিন যুবতীকে অশ্লীল অবস্থায় উদ্ধার করা হয়৷ অন্য রেস্তোরা থেকে দুই যুবক যুবতীকেও অশ্লীল অবস্থায় পাওয়া যায়৷

 

এদের সঙ্গে একটি রেস্তোরার মালিককেও গ্রেফতার করা হয়৷ এছাড়াও রেস্তোরার এক কর্মচারীকেও গ্রেফতার করা হয়৷ ধৃতদের নবাবগঞ্জ থানায় নিয়ে আসা হয়৷

Loading…

অন্যদিকে উত্তরপ্রদেশের রামপুরে একটি হোটেলের সামনে দাড়িয়ে থাকা স্করপিও গাড়ি থেকে চার যুবক ও দুই যুবতীকে অশ্লীল অবস্থায় গ্রেফতার করে সিভিল লাইন্স পুলিশ৷ দুই যুবতী গোয়ালিয়রের বাসিন্দা৷ যদিও যুবকদের মধ্যে তিন জন নয়ডা ও একজন বারাবঙ্কি এলাকার বাসিন্দা৷

 

খবর পেয়েই পুলিশ হোটেল চত্বরে হানা দেয়৷ পুলিশ এদের আপত্তিজনক অবস্থায় উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে৷ সাদা রঙের স্করপিও গাড়িও থানায় নিয়ে আসা হয়৷ স্করপিওর মালিকের কাছে গাড়ির কাগজ না থাকায় গাড়িটিকে বাজেয়াপ্ত করা হয় ও যুবক যুবতীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধারায় মামলা দায়ের করে চালান করে দেওয়া হয়েছে৷ পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত যুবকেরা নয়ডা বা দিল্লিতে কাজ করেন৷ তারা চার দিনের জন্য দুই যুবতীকে নিয়ে নৈনিতাল গিয়েছিল৷ দুই যুবতীর বাড়িতেও খবর দিয়েছে পুলিশ৷

আরো খবর »