মানিকগঞ্জে প্রকাশ্যে অস্ত্রের মুখে স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

মানিকগঞ্জ থেকে জালাল উদ্দিন ভিকু : মানিকগঞ্জ শহরের স্বর্ণকার পট্টির নাগ জুয়েলার্সে ফিল্মি ষ্টাইলে প্রকাশ্যে অস্ত্রের মুখে কয়েক শত ভরি স্বর্ণালংকার ডাকাতির ঘটনা ঘটে। যাওয়ার সময় অস্ত্রধারী মুখোশ পরিহিত যুবকরা বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ করে বীরদর্পে একটি মাইক্রোবাস ও একটি ট্যাক্সি করে পালিয়ে যায়।

এদিকে বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে আটটার দিকে সাটুরিয়া বাসষ্ঠ্যান্ড এলাকায় পুলিশের সাথে ডাকাতদের গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। এতে সাটুরিয়া থানার এসআই আসলাম,এসআই হাসান ,কনেষ্টবল ওয়াহেদসহ অন্তপক্ষে ৪ জন আহত হয়েছে।

নাগ জুয়েলার্সের মালিক চন্দ নাগ স্বাধীনবাংলা২৪.কম’কে জানিয়েছেন তার উপস্থিতিতে বুধবার রাত সাতটার দিকে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। তিনি জানান, আনুমানিক সাতটার দিকে তার দোকানে প্রথমে দুই নারী কাষ্টমার প্রবেশ করে। এরপরপরই ডিবি পুলিশের পরিচয় দিয়ে ৭/৮ জন অস্ত্রধারী প্যান্ট শার্ট পরিহিত যুবক তার দোকানে অতকির্ত ভাবে ঠুকে তার এক কর্মচারীকে থাপ্পর দিয়ে একে এক দোকানের ভেতর ঠুকে তাদের কাছে থাকা ব্যাগের মধ্যে স্বর্ণালংকার ঠুকায়। সিসি টিভির ক্যামেরায় দেখা গেছে, ওই সশস্ত্র যুবকরা ফিল্মি ষ্টাইলে রিভলবার উচিয়ে দোকানে প্রবেশ করে।তাদের অধিকাংশের মুখোশধারী ছিলো। একে একে দোকানে থাকা সকল স্বর্ণালংকার লুট করে তাদের ব্যাগে ঢুকায়। এসময় আশপাশের দোকানরা এই ডাকাতির ঘটনা প্রত্যক্ষ করেছেন। তবে ওই যুবকদের অস্ত্রের ভয়ে কেউিই এগিয়ে আসতে সাহস পায়নি। এছাড়া জেলা শহরের সকল দোকানপাট মুহু্র্েতর মধ্যে বন্ধ হয়ে যায়। সকল দোকানদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পরে।

সাটুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: আমিনুর রহমান সাংবাদিকদের কাছে এই তথ্য জানান। এছাড়া একজনকে আটক করা হয়েছে বলেও জানান।

এদিকে দোকানে গিয়ে দোকানের সিসি টিভির ফুটেজে দেখা দেখা ওই যুবকরা বেশ ঠান্ডা মাথায় অস্ত্র প্রর্দশন করে ওই দোকানের সকল স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ৈ যাচ্ছে।

মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হাসান সাংবাদিকদের কাছে জানিয়েছেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।
এদিকে এই ডাকাতির ঘটনানাকে নাগ জুয়েলাসের মালিকের বড় ভাই চন্দন নাগ জানান, এটি একটি পরিকল্পিত ডাকাতি। এর সাথে ডিবি পুলিশ জড়িত বলে তিনি দাবী করেছেন।

এদিকে স্বর্ণকার মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক রঘুনাথ সরকার দাবী করেছেন কয়েকদিন আগে তাকে মানিকগঞ্জ ডিবি পুলিশের কয়েকজন সদস্য ডেকে নিয়ে অবৈধ স্বর্ণের ব্যবসার করা হচ্ছে এই অভিযোগ এনে দুই কোটি টাকা চাঁদা দাবী করেন বলে জানান তিনি।
প্রত্যক্ষদর্শী জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সুলতানুল আজম আপেল জানান, তিনি দেখেছেন একটি প্র্ইাভেটকার ও একটি ট্যাক্সিতে করে ওই সশস্ত্রধারী যুবকরা স্বর্ণালংকার লুট করে গাড়ীতে উঠে পালিয়ে যায়।

আরো খবর »