‘লাবণ্য’ চরিত্রে জয়া আহসান

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

বিনোদন প্রতিবেদক: ঝরা পালক ছবির শুটিং শুরু হয়ে গেছে। নির্জনতার কবি জীবনানন্দের জীবন নিয়ে নির্মাণাধীন এই ছবিতে কবির স্ত্রী লাবণ্য দাশের চরিত্রটি করছেন বাংলাদেশের জয়া আহসান। গত মঙ্গলবার কলকাতার আহিরীটোলায় শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন তিনি।

এই ছবিতে জীবনানন্দ দাশের চরিত্রে অভিনয় করছেন কলকাতার ব্রাত্য বসু ও রাহুল। দুই অভিনেতাকে দেখা যাবে কবির দুটি বয়সের চরিত্রে। কবির মায়ের চরিত্রে চান্দ্রেয়ী ঘোষ, সাহিত্যিক সজনীকান্ত দাসের চরিত্রে অভিনয় করছেন দেবশঙ্কর হালদার। এ ছাড়া জীবনানন্দের নামের সঙ্গে জড়িয়ে থাকা বেশ কিছু চরিত্রকে পাওয়া যাবে ঝরা পালক-এ।

পরিচালক সায়ন্তন মুখোপাধ্যায়ের ইচ্ছা, শুটিং শেষ করে এ বছর সম্পাদনার কাজও শুরু করে দেবেন। বিশ্বের বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্র উৎসব ঘুরে আসার পর সবার জন্য অবমুক্ত করা হবে ঝরা পালক। ছবিটির চিত্রনাট্য তৈরিতে সহায়ক হয়েছিল মূলত কবির লেখা উপন্যাসগুলো। পরিচালক সায়ন্তন মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘ওগুলোয় তাঁর জীবনের ছায়া রয়েছে। তা ছাড়া প্রচুর নোট নিতেন কবি। উপন্যাস, ওই নোটগুলো, ক্লিনটন বি সিলি ও ভূমেন গুহর বইও কাজে দিয়েছে।’

লাবণ্যর থেকে লোকে বনলতাকে বেশি ভালোবাসে। তাহলে কেন লাবণ্যর চরিত্র করছেন—প্রশ্ন রাখা হয়েছিল জয়ার কাছে। তিনি বলেছেন, ‘লাবণ্যই বনলতা, লাবণ্যই কবির সুরঞ্জনা। লাবণ্যই হচ্ছে মাল্যবানের অ্যান্টিথিসিস।’ পরিচালকও বললেন সে রকম। আলাদা করে বনলতা নামের কোনো চরিত্র রাখা হয়নি। এমনকি রবীন্দ্রনাথও ছবিতে থাকবেন ছায়ার মতো। ছবিতে থাকবে বাসর রাতে কবিকে শোনানো লাবণ্যর গাওয়া রবীন্দ্রসংগীত ‘জীবন-মরণের সীমানা ছাড়ায়ে’।

জীবনানন্দ দাশকে নিয়ে বাঙালির প্রবল উৎসাহ। তাঁর জীবনীভিত্তিক চলচ্চিত্র নির্মাণে সেই উৎসাহে যুক্ত হবে নতুন মাত্রা। গত জুন মাসে জানা গিয়েছিল, কলকাতায় জীবনানন্দকে নিয়ে ছবি হচ্ছে, তাতে অভিনয় করতে পারেন জয়া আহসান। অবশেষে শুটিং সেট থেকে পাওয়া ছবি বলে দিল, শুধু অভিনয়ই নয়, জয়া যেন এখন জীবনানন্দের সময়েই চলে গেছেন।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »