দীপিকার নাক কেটে দেওয়ার হুমকি

Feature Image

অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনের বাড়ির সামনে। রাজপুতদের সংগঠন কর্নি সেনার রাজস্থান শাখা কর্তৃক দীপিকার নাক কেটে দেওয়ার হুমকি পরিপেক্ষিতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়।

‘পদ্মাবতী’ চলচ্চিত্রে নাম ভূমিকায় অভিনয় করার কারণে হুমকির সম্মুখীন হন দীপিকা পাড়ুকোন।

বৃহস্পতিবার কর্নি সেনার সভাপতি মহিপাল সিং মাকরানা চলচ্চিত্রে রানি পদ্মিনীকে অসম্মান করার অভিযোগ তুলে দীপিকার নাক কেটে দেওয়ার এ হুমকি দেন। আর পর্দার ‘পদ্মাবতী’কে ‘নর্তকী’ বলেও সম্বোধন করেছেন সংগঠনটির আরেক নেতা লোকেন্দ্র সিং কালভি। পাশাপাশি ‘পদ্মাবতী’র মুক্তি রুখতে আগামী ১ ডিসেম্বর ভারতজুড়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন তিনি।

এদিনই চলচ্চিত্রের নির্মাতা সঞ্জয় লীলা বানসালী ও দীপিকার মুণ্ডুচ্ছেদের জন্য ৫ কোটি রুপির পুরস্কার ঘোষণা করেছে উত্তর প্রদেশের আরেক উগ্র সংগঠন ক্ষত্রিয় সমাজ।
উল্লেখ্য, ৭০০ বছর আগের চিতোরের রানি পদ্মিনীর জীবনী নিয়ে নির্মিত হয়েছে ‘পদ্মাবতী’। আগামী ১ ডিসেম্বর ইতিহাসভিত্তিক চলচ্চিত্রটি মুক্তি পাওয়ার কথা থাকলেও উত্তরপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, রাজস্থান, গুজরাট, হরিয়ানাসহ বিভিন্ন রাজ্যে বিক্ষোভ করছে নানা ধর্মীয় সংগঠন। নানা জায়গায় বিক্ষোভে কণ্ঠ মেলাচ্ছেন কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন বিজেপির নেতারাও।

‘পদ্মাবতী’তে নাম চরিত্রের অভিনেত্রী দীপিকার সহশিল্পী হিসেবে রয়েছেন শহিদ কাপুর ও রণবীর সিং।

আরো খবর »