শীতে ভালো গুড় চেনার সহজ উপায়

Feature Image

আসছে শীতকাল। যদিও উত্তর জনপদে ইতোমধ্যেই শীত নেমেছে।

প্রকৃতির নিয়মে শরতের সাদা মেঘের ভেলা উড়িয়ে হেমন্ত এসেছে। তাই দেশব্যাপী সকাল-বিকেল অবশ্য একটু শিরশিরানিও অনুভব করা যাচ্ছে। আর এতেই মিলছে গুড়ের আগমন বার্তা। খেজুর গাছে শুরু হয়ে গেছে রসের হাড়ি বাঁধা। এই রসই রূপান্তরিত হবে পরিশুদ্ধ গুড়ে। কিন্তু তা কতটা আপনার কাছে এসে পৌঁছবে? পৌঁছলেও বা চিনবেন কেমন করে?
১) গুড় কেনার সময় তা অবশ্যই চেখে দেখতে হবে। যদি তাতে একটু নোনতা স্বাদ পাওয়া যায় তাহলেই বুঝা যাবে অন্য কিছু মেশানো রয়েছে তাতে। আর এমন গুড় যত পুরনো হবে তাতে নুনের মাত্রা তত বেশি হবে।

 

২) যদি গুড়ের স্বাদ একটু তেতো হয় তাহলে বুঝবেন সেই গুড় বেশি ফোটানো হয়েছে।

আর তাতে অন্য শর্করা মেশানো হয়েছে।
৩) গুড় কেনার সময় খেয়াল করবেন তার কিছু অংশ স্ফটিকের মতো কিনা। যদি গুড়ে স্ফটিকের মতো অংশ থাকে তাহলেই বুঝতে হবে তা বাড়তি মিষ্টি করার জন্য অন্যকিছু মেশানো হয়েছে।

৪) গুড় কেনার সময় তার রং অবশ্যই দেখে নেবেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দর্শনেই গুণ বিচার করা যায়। শুদ্ধ গুড়ের রং গাঢ় বাদামি হয়ে থাকে। হলদেটে গুড় দেখলেই বুঝবেন তাতে রাসায়নিক মেশানো হয়েছে।

 

৫) গুড়ের ডেলাটি একটু টিপে দেখে নেবেন। গুড় যত শক্ত হবে, ততই ভালো। শক্ত গুড়ে অন্যান্য সামগ্রী মেশানোর সম্ভাবনা প্রায় থাকে না বললেই চলে।

শীতে মুখ মিষ্টি করার অনেক উপায় রয়েছে এ কথা সত্য। তবে এ কথাও সত্য যে বাঙালির কাছে গুড়ের কোনো বিকল্প নেই। বিশেষ করে গরম ধোঁয়া ওঠা পিঠের সঙ্গে। তাই বেছে খান। আর সেরাটা পান।

আরো খবর »