রাজধানীতে শীত নামবে কবে?

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা:‘কবে নামবে শীত। আগে নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকেই শীত পড়তে শুরু করতো। এখন তো দিনে গরম আর রাতে শীত শীত অনুভূতি লাগে। আসলে ঢাকায় শীতকাল আসবে কবে।’ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের একটি বেসরকারি স্কুলের সামনে মঙ্গলবার দুপুরে দুই অভিভাবক শীতের আগমন নিয়ে এভাবেই আলোচনা করছিলেন। এই দুই অভিভাবকের মতো রাজধানীবাসীর অনেকের মনে এখন প্রশ্ন ঢাকায় শীত নামবে কবে?

আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, রাজধানীতে এখনই শীত নামবে না। ডিসেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহের পর ঢাকায় শীত নামতে পারে। তারা বলছেন, ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকে রাজধানীর বাইরে শীত পড়তে শুরু করলেও ঢাকায় দ্বিতীয় সপ্তাহের আগে শীত না আসার সম্ভাবনাই বেশি।

আবহাওয়া অধিদফতরের আবহাওয়াবিদ নির্ঝুম রোকেয়া আহমেদ মঙ্গলবার দুপুরে বলেন, তাদের হিসেবে এখনও শীতকাল শুরু হয়নি। যদিও দেশের বিভিন্ন স্থানে তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে তবুও শীতকাল শুরু হয়েছে বলা যাবে না। কারণ তাপমাত্রা কখনও কমছে আবার কখনও বৃদ্ধি পাচ্ছে। উদাহারণ হিসেবে তিনি তেতুলিয়ায় সোমবারের তাপমাত্রা ১৬ দশমিক ৪ ডিগ্রী সেলসিয়াম উল্লেখ করে বলেন, কয়েকদিন আগে তাপমাত্রা আরও অনেক কম ছিল। তবে দেশের উত্তরাঞ্চলে তাপমাত্রা হ্রাস পেয়ে শীত অনুভূত হচ্ছে বলে জানান তিনি।

রাজধানী ঢাকায় কবে শীত পড়তে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে ওই কর্মকর্তা বলেন, রাজধানী ঢাকায় ঘনবসতি ও গাছপালা কম থাকার কারণে এখানে শীত দেরিতে আসে। মধ্য ডিসেম্বরের পর ঢাকায় শীত জেঁকে বসতে পারে। তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির নীচে হলে শৈত্যপ্রবাহ চলছে বলে মনে করা হয়। এ বছর ২-১টি শৈত্যপ্রবাহ নামতে পারে।

রাজধানীর কলাবাগানের বাসিন্দা ইউসুফ আলী বলেন, সকাল বেলা কুয়াশা পড়লেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে গরম অনুভূত হয়। রাতের দিকে আবার শীত শীত লাগে। আগে নভেম্বর মাসের মাঝামাঝি স্কুলের ফাইনাল পরীক্ষার পর শীতের রাতে লাইট জ্বালিয়ে ব্যাডমিন্টন খেলা হতো। এখন শীত না পড়াতে সেই দৃশ্য চোখে পড়ে না।

লালবাগের বাসিন্দা সানোয়ার আলী বলেন, শীত না এলেও রাস্তাঘাটে ব্যাপক ধুলোবালি। সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে সকালে রাস্তাঘাট পানি দিয়ে ভেজানো শুরু হওয়ায় ধুলোবালি কিছুটা কম থাকে। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রোদে রাস্তার পানি শুকিয়ে ফের ধুলোবালি বাড়তে থাকে।

আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, গত ১৫ নভেম্বর থেকে আজ ২১ নভেম্বর পর্যন্ত রাজধানীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল যথাক্রমে ২৫, ২৪ দশমিক ৮, ২৭ দশমিক ৬, ৩১, ৩২ দশমিক ৫, ৩২ এবং ২৯ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। একই সময়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩ দশমিক ৫, ২১, ২২ দশমিক ২, ২৩, ২৩ দশমিক ২, ২১ দশমিক ৫ ও ২০ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সোমবার দেশের সর্বোচ্চ তামপাত্রা টেকনাফে ৩২ দশমিক ৫ ও সর্বনিম্ন তেতুলিয়ায় ১৬ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »