মৃত্যুপথযাত্রীর শেষ ইচ্ছাপূরণ করে মানবিকতার নজির গড়লেন তারা!

Feature Image

 

এ জীবনে দায়িত্বের কোনও শেষ নেই। দায়িত্বের বোঝা বইতে বইতে কখন যে জীবনে আঁধার নেমে আসে, টেরই পাওয়া যায় না।

আর ঠিক তখনই ছোট ছোট ইচ্ছাগুলো পূরণের সাধ যেন প্রবল হয়ে ওঠে। মৃত্যুপথযাত্রীর শেষ ইচ্ছা পূরণের মাধ্যমে ফুটে ওঠে মানবিকতা।
হাসপাতালে যাওয়া পথে, নিজের শেষ ইচ্ছার কথা অ্যাম্বুল্যান্সের দুই কর্মীকে জানিয়েছিলেন এক অস্ট্রেলিয় নারী। মৃত্যুপথযাত্রী ওই নারীর ইচ্ছা পূরণ করলেন তারা। তাকে শেষবারের জন্য নিয়ে গেলেন সমুদ্রের কিনারে।

 

অস্ট্রেলিয়া অত্যন্ত জনপ্রিয় অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা কুইন্সল্যান্ড অ্যাম্বুল্যান্স সার্ভিস। ফেসবুকে গোটা ঘটনাটি কথা তুলে ধরেছে সংস্থাটি। স্থানীয় এক মুমূর্ষ নারীকে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছিলেন সংস্থার দুই কর্মী ড্যানিয়েল কেল্লাম ও গ্রাহাম কুপার।

অ্যাম্বুল্যান্সে যাওয়ার সময়ে, ওই নারী, তাদের বলেন, হাসপাতালে নয়, তিনি সমুদ্রের ধারে যেতে চান।

নিজেদের দীর্ঘ অভিজ্ঞতায় ড্যানিয়েল ও গ্রাহাম বুঝতে পারেন, ওই মহিলার আয়ু আর বেশিদিন নেই। হাসপাতালে নিয়ে গেলেও, তিনি আর বাঁচবেন না। বিধির বিধান পাল্টে ফেলার ক্ষমতায় কারও নেই। কিন্তু, মৃত্যুপথযাত্রী নারীর শেষ ইচ্ছাটুকু অন্তত পূরণ করা যায়। এই ভেবে হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে অ্যাম্বুল্যান্স রুট সামান্য বদলে ওই নারীকে স্থানীয় একটি বিচে নিয়ে যান ওই দুই স্বাস্থ্যকর্মী। অ্যাম্বুল্যান্স থেকে নামিয়ে হুইল চেয়ার বসিয়ে তাকে সমুদ্রের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। ওই নারীর চোখে তখন জল।

তবে নিজেদের কর্তব্য থেকে বিচ্যুত হননি ড্যানিয়েল ও গ্রাহাম। সমুদ্র দর্শনের পর ওই নারীকে নিরাপদে হাসপাতালেও পৌঁছে দেন তারা।

স্বাস্থ্যকর্মী ড্যানিয়েল জানিয়েছে, হাসপাতালে পৌঁছনোর পর, ওই নারী কিছুটা উদাসীন হয়ে পড়েছিল। তিনি যখন বলেন, কী ভাবছেন? তখন ওই নারী বলেন, সবকিছু ঠিক আছে। আমি পরম শান্তিতে আছি। ঘটনাচক্রে, কয়েকদিন পরেই ওই নারী মারা যান।

আরো খবর »