‘মিয়ানমারে শান্তি অর্জনে আরো কাজ বাকি আছে’

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: মিয়ানমারের বেসামরিক সরকার অংশের প্রধান অং সান সু চি বলেছেন, তার দেশ একটি শান্তিপূর্ণ সমাজ গঠনে কাজ করে যাচ্ছে। তবে ‘আরো অনেক কাজ বাকি রয়েছে’ বলেও স্বীকার করেছেন তিনি। খবর এবিসি নিউজের।

চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি আয়োজিত বিশ্ব রাজনীতিক নেতাদের এক ফোরামে শুক্রবার তিনি এ মন্তব্য করেন।

সু চি বলেন, ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) নেতৃত্বাধীন সরকার ‘দেশটিতে শান্তি, স্থিতিশীলতা ও ভারসাম্য প্রতিষ্ঠায় অনেকটাই এগিয়েছে’। তবে ‘আরো অনেক কিছু করার বাকি আছে’ বলে তিনি উল্লেখ করেছেন।

তবে এসময় সু চি রোহিঙ্গা সঙ্কটের বিষয়টি কথা সরাসরি উল্লেখ করেননি।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীন বরাবরই নেতিবাচক কোনো মন্তব্য করা থেকে বিরত থেকেছে। এদিকে প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে সু চির বৈঠকে রোহিঙ্গা ইস্যুটি আলোচনা করা হয়েছে কিনা জানা যায়নি। তবে চীনের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যম সিসিটিভি জানিয়েছে, উভয় নেতাই ‘চীন-মিয়ানমার ইকোনোমিক করিডোরের’ মাধ্যমে ভবিষ্যত সহযোগিতার এ ধারার প্রশংসা করেন।

বিশ্লেষকরা বলছেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারকে বিশ্ব সম্প্রদায়ের সমালোচনা থেকে রক্ষা করে আদতে চীনেরই লাভ হয়েছে।

মিয়ানমারের একজন প্রখ্যাত রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেছেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমালোচনার হাত থেকে বাঁচতে মিয়ানমার চীনের দিকে ঝুঁকেছে।

এদিকে সাবেক মানবাধিকার গবেষক ও মিয়ানমারভিত্তিক একজন স্বাধীন বিশ্লেষক ডেভিড ম্যাথিসন বলেছেন, চীন এ সুযোগটা দারুণ কাজে লাগিয়েছে। বেইজিং যখন মিয়ানমার পশ্চিমাদের জন্য উন্মুক্ত হচ্ছে তখনই এমন একটা পরিস্থিতির দারুণ ফায়দা নিয়েছে তারা।

গেলো সপ্তাহে মিয়ানমারের সেনাপ্রধান মিন অং হ্লেইং চীন সফর করেছেন।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »