১৫ বছর গর্ভাবস্থার পর জন্ম হল ‘স্টোন বেবি’র!

Feature Image

এই পৃথিবীতে কতইনা অদ্ভুত ঘটনা ঘটে। ‘স্টোন বেবি’ জন্ম তেমনই একটি ঘটনা। ভারতে মহারাষ্ট্রের নাগপুরে ‘স্টোন বেবি’র জন্মের ঘটনা প্রকাশ্যে আসায় এক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে৷১০ মাস ১০ দিন নয়, টানা ১৫বছর গর্ভাবস্থার পর জন্ম হয় এই ‘স্টোন বেবি’র!

জানা যায, ভারতের নাগপুরের এক নারীর বিয়ে হয়েছিল ১৯৯৯ সালে। ২০০০ সালে প্রথম সন্তান হয়। ২০০২ সালে ফের গর্ভবতী হন, তবে তিনি গর্ভপাত করিয়েছিলেন। কিন্তু সেই গর্ভপাত ঠিক না হওয়ায় কিছু অংশ রয়ে গিয়েছিল নারীর পেটে, যা পরে ‘স্টোন বেবি’র আকার ধারণ করে।

‘স্টোন বেবি’র গর্ভধারন নিয়ে ওই নারী নিজেও কিছু জানতেন না৷১৫ বছর ধরে এই শিশু তাঁর গর্ভেই ছিল৷ তবে এর জন্য তার মাঝে মাঝে পেটে ব্যথা হত। তিনি তা অ্যাসিডিটি মনে করে অগ্রাহ্য করে গিয়েছিলেন বছরের পর বছর৷একের পর এক ওষুধও খেয়েছেন তিনি কিন্তু কোন লাভ হয়নি৷ব্যথা বৃদ্ধি পেতে থাকলে অবশেষে তিনি নাগপুরেই চিকিৎসকের কাছে যান।

সিটি স্ক্যান করে জানতে পারেন পাথরের মতো কোন একটি বস্তু রয়েছে তাঁর পেটে৷ ল্যাপ্রোস্কপির পর বিষয়টি আরও স্পষ্ট হয়ে যায়৷ অপারেশনের মাধ্যমে পেট থেকে শিশুটিকে বের করা হয়, তবে সে আর রক্ত-মাংসের ছিল না, ছিল সম্পূর্ণ পাথরের৷ মেডিক্যাল টার্ম অনুযায়ী যাকে বলা হয়ে থাকে ‘স্টোন বেবি’৷

সূত্র: কলকাতা টোয়েন্টিফোর সেভেন।

আরো খবর »