দুর্নীতির মামলায় ব্রাজিলের ‘হোয়াটসঅ্যাপ’ মেয়রের ১৪ বছরের জেল

Feature Image

 

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম হোয়াটসঅ্যাপে ব্যাপকভাবে পরিচিত ব্রাজিলের এক শহরের মেয়র ২৭ বছর বয়সী লিদিয়ান লেইট৷ সম্প্রতি সেই লিদিয়ান বড় কেলেঙ্কারি করে বসেছেন। দুর্নীতির অভিযোগে এবার এই সুন্দরী মেয়রের ১৪ বছরের জেল হলো।

জানা যায়, নিজ শহর থেকে ১৫০ মাইল দূর থেকে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমেও শহরের বহু প্রশাসনিক কাজ করতেন লিদিয়ান। আর এ কারণে তাকে ‘হোয়াটসঅ্যাপ মেয়র’ বলা হত।

তার বিরুদ্ধে নানা ধরনের দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। বিশেষ করে উন্নয়নের বিভিন্ন কাজ যেমন স্কুল ফান্ড, পার্ক তৈরির টাকা সব আর্থিক কর্মকাণ্ডে বড় মাপের কেলেঙ্কারি করেছেন। স্কুল ফান্ড থেকে এত টাকা সরিয়েছেন যে, শিক্ষকরা মাইনে পর্যন্ত পাচ্ছেন না।

মেয়রের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি মাঝে মাঝেই সেলফি তুলে ছবি পোস্ট করতেন তিনি । আর্থিক কেলেঙ্কারি নিয়ে যখন তাকে নিয়ে তোলপাড় গোটা শহরে, তখন লিদিয়ান শ্যাম্পেনের গ্লাস হাতে ছবি পোস্ট করেন।

লিদিয়ান মেয়র হওয়ার সুযোগ পান ২০১২ সালে, যখন তার স্বামী বেটো রোচা আর্থিক কেলেঙ্কারি অভিযোগে ভোটে দাঁড়াতে পারেননি। এরপর কেলেঙ্কারির অভিযোগের সত্যতা সামনে আসতেই পুলিশ নড়েচড়ে বসে।

মেয়রকে গ্রেফতার করার সমন জারি করা হতে পারে। ততক্ষণে মেয়র পালিয়েছেন। এরপর ধরা পড়ার আগ পর্যন্ত হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমেই কিছুদিন প্রশাসনিক কাজকর্ম করেছেন তিনি।
সূত্র : ইন্ডিপেনডেন্ট

আরো খবর »