এখন কেন কাঁদছ?

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

পাবনা: দীর্ঘ ৫ বছর পর মা-বাবাকে পেয়ে বেজায় খুশি সুমি। তবে মা আঞ্জুয়ারা খাতুন সুমিকে বুকে জড়িয়ে ধরতেই মুখ ফিরিয়ে নেয় সে।

এ সময় সুমি তার মায়ের উদ্দেশে বলে, এখন কেন কাঁদছ। আমাকে কাজে দেয়ার সময় মনে ছিল না!

সোমবার রাতে পাবনার চাটমোহরে মারধর ও বাথরুমে বন্দিদশা থেকে উদ্ধারের পর এ কথা মাকে উদ্দেশ করে বলে গৃহকর্মী সুমি খাতুন (১৪) ।

এ ঘটনায় মা আঞ্জুয়ারা বাদী হয়ে মামলার করার পর পুলিশ অভিযুক্ত আবদুস সোবাহান বিচ্ছু ও তার স্ত্রী ফেরদৌসী বেগমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার রাতে পৌর শহরের ছোট শালিকা মহল্লার (কালীনগর) বাসা থেকে তাদের দুজনকে গ্রেফতার করা হয়।

সুমি পার্শ্ববর্তী গুরুদাসপুর উপজেলার দড়ি হাঁসমারী  গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে।

চাটমোহর থানার ওসি এসএম আহসান হাবীব জানান, এ ঘটনায় গৃহকর্মী সুমির মা আঞ্জুয়ারা বাদী হয়ে অভিযুক্ত স্বামী-স্ত্রীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন, যার মামলা নং-৫। সুমিকে তার পরিবারের জিম্মায় দেয়া হয়েছে। অভিযুক্তদের মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

এদিকে খবর পেয়ে ঢাকা থেকে সোমবার রাতে মেয়ে সুমির কাছে আসেন বাবা শফিকুল ইসলাম ও মা আঞ্জুয়ারা খাতুন।

তারা বিলাপ করে বলেন, আমরা মেয়ের সুখ খুঁজতে গিয়েছিলাম। কিন্তু আজ সুখের বদলে আমার মেয়ের এই করুণ পরিণতি। আমরা এই নির্যাতনের ন্যায়বিচার চাই।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »