ঐতিহাসিক বাবরী মসজিদ ধ্বংসের ২৫ বছরে ‘কালো দিবস’ আর ‘বিজয় দিবস’

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের অযোধ্যায় বাবরি মসজিদ ধ্বংসের ২৫ বছর হচ্ছে আজ। এ উপলক্ষে নানা কর্মসূচির ডাক দিয়েছে বিভিন্ন সংগঠন। এ কারণে অযোধ্যায় ব্যাপক নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তা ঘেরাটোপে মুড়ে দেওয়া হয়েছে ফৈজাবাদ শহরকেও। প্রতিটি যানবাহনের ওপর কড়া নজর রাখছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

বাবরি ধ্বংসের আজকের দিনটিকে ‘শৌর্য ও বিজয় দিবস’ হিসেবে পালন করার ডাক দিয়েছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও সহযোগী সংগঠনগুলো। অযোধ্যা ও ফৈজাবাদ শহরের বাসিন্দাদের বাড়িতে দীপ জ্বালিয়ে দিনটি পালনের ডাক দিয়েছে বজরং দল।

অন্যদিকে অযোধ্যা ও ফৈজাবাদ শহরে মুসলিম সংগঠনগুলো দিনটিকে ‘কালো দিবস’ হিসেবে পালন করবে। পাশাপাশি বাম সংগঠন সিপিআই (এম), সিপিআই, আরএসপি, ফরওয়ার্ড ব্লক, সিপিআই (এম-এল) ও এসইউসিআইও ‘কালো দিবস’ হিসেবেই পালন করে থাকে দিনটি।

দিনটি ঘিরে অযোধ্যা শহরে নিরাপত্তা বাহিনীকে সতর্ক রাখা হয়েছে। প্রতিটি গাড়ি পরীক্ষার জন্য ব্যাবহার করা হচ্ছে বম্ব ডিটেক্টর। উত্তর প্রদেশ পুলিশের পাশাপাশি উত্তর প্রদেশের অযোধ্যা ও ফৈজাবাদ শহরে মোতায়েন করা হয়েছে সিআরপিএফ জওয়ানও। দুই শহরেই নিরাপত্তা কঠোর করা হয়েছে।  অযোধ্যা শহরে গাড়ি, হোটেল এবং ধর্মশালাগুলোতে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

বিশ্ব হিন্দু পরিষদের মুখপাত্র শরদ শর্মা জানিয়েছেন, আজকের দিনে শুধু বাড়িতেই নয়, অযোধ্যা ও ফৈজাবাদ শহরের মন্দিরগুলোও সাজানো হবে। প্রথা মেনে অযোধ্যায় পরিষদের সদর দপ্তর করসেবকপুরমে ‘শৌর্য দিবস’ ও ‘বিজয় দিবস’ পালন করা হবে।

১৯৯২ সালের আজকের দিনে ভাঙা হয়েছিল বাবরি মসজিদ।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

Loading...

আরো খবর »