ছোট পুরুষাঙ্গ দিয়ে স্ত্রীকে তৃপ্তি দেওয়ার উপায়

Feature Image

পুরুষাঙ্গ ছোট হলে অনেক স্ত্রীই যৌন তৃপ্তি লাভ করতে পারে না। কিন্তু পুরুষাঙ্গ ছোট হলেও কলা-কৌশল অবলম্বন করে স্ত্রীকে যৌন সুখ দেওয়া যায়। এটি কিভাবে করতে হয় তা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।অনেক পুরুষ মনে করেন তাদের পুরুষাঙ্গ ছোট। আর এই মনে করাটা তাদের মানসিকভাবে অনেক দুর্বল করে দেয়। তারা নারীর সামনে সাবলীল হতে পারে না। বিশেষ করে যৌন আবেদনময়ী বা আচরণে কামুক ভাব আছে এমন নারীদের কাছ থেকে পারলে পালিয়ে বাঁচেন।বিশেষজ্ঞরা কিন্তু বলেন, পুরুষাঙ্গ বা পেনিস (মার্কিন উচ্চারন পিনেস) বা ধোন বড় না ছোট সেটা আসলে তেমন গুরুত্বপূর্ণ নয়। সঙ্গিনীকে সুখ দিতে চাইলে বড় আকারের একটা পুরুষাঙ্গ লাগবেই – এমনটা ভাবা বোকামি।মার্কিন ম্যান’স হেল্থ ম্যাগাজিন সম্প্রতি এই নিয়ে একটি নিবন্ধ প্রকাশ করেছে। তার আলোকেই এই লেখা। শুরুতে জানা যাক, ছোট পুরুষাঙ্গ আসলে কত ছোট? চিকিৎসকদের হিসেবে দাঁড়ানো মানে উত্তেজিত অবস্থায় পুরুষাঙ্গ আড়াই ইঞ্চির ছোট হলে সেটি ‘‘মাইক্রোপেনিস” বা ছোট পেনিস হিসেবে বিবেচিত হবে।মার্কন যুক্তরাষ্ট্রে এরকম ছোট পেনিস আছে প্রায় পনের লাখ মানুষের। তবে আমাদের দেশে ঠিক কতজনের মাইক্রোপেনিস আছে জানিনা। এতটুকু জানি, যেসব পুরুষ নিজেদের পাঁচ ইঞ্চি লম্বা পেনিসকেও ছোট মনে করেন, তারা নেহাত বোকা।

পর্নো ছবি দেখে দেখে তাদের আত্মবিশ্বাসে আসলে চিড় ধরেছে।. যাহোক, বলছিলাম ছোট পুরুষাঙ্গ দিয়ে নারীকে সুখ দেয়ার পদ্ধতির কথা। ম্যান’স ম্যাগাজিন মার্কিন নাগরিক জিমের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন। তাঁর পুরুষাঙ্গ দাঁড়ানো অবস্থায় তিন ইঞ্চির ছোট। অথচ এই ছোট পুরুষাঙ্গ দিয়েই তিনি দিব্যি সামলে যাচ্ছেন তাঁর সুন্দরী, অভিনেত্রী স্ত্রীকে। কিভাবে? সেটাই জানবো চলুন।আগে থেকে প্রস্তুতি নিনঃ ছোট পুরুষাঙ্গের অধিকারীদের বুঝতে হবে যে পুরুষাঙ্গের আকারই সেক্স লাইফের একমাত্র সম্বল নয়। আসলে কারোরই তেমন ভাবা উচিত নয়। তাই নারীদেহ সম্পর্কে ভালো ধারনা অর্জন করতে হবে। সঙ্গিনী তাঁর দেহের কোন অংশে আদর করলে উত্তেজনা অনুভব করে সেগুলো বুঝতে হবে। এসম্পর্কে এখান থেকে সাহায্য নিন। ডগি স্টাইল– জিম একটি গুরুত্বপূর্ণ কথা বলেছেন। সমকামী বা লেসবিয়ান নারীরাও সেক্স করেন এবং কার্যত কোন পুরুষাঙ্গ ছাড়াই একে অপরকে আদর করে চরম সুখ লাভ করেন। তবে জিম বলছেন না যে তিনি সঙ্গম করেন না। বরং চিকিৎসকদের বরাতে তাঁর বক্তব্য হচ্ছে, মেয়েদের যোনি মুখ এবং শুরুর এক বা দুই ইঞ্চি জায়গা হচ্ছে সবচেয়ে স্পর্শকাতর। আর ছোট পুরুষাঙ্গ দিয়ে সঙ্গমের সময়ও নারীর এই অংশে ঘষা লাগে। যৌন সুখের জন্য এটা প্রয়োজন। তাছাড়া ছোট পুরুষাঙ্গের জন্য সহায়ক কিছু সেক্স পজিশনও আছে। বিশেষ করে সঙ্গিনী হাত পায়ের উপর ভর করে পাছা উঁচু করে ধরলে, মানে ‘ডগি স্টাইল’ বা ‘ডাউনওয়ার্ড ডগ’ স্টাইলে সেক্স করলে ছোট পুরুষাঙ্গ দিয়েও নারীকে চরম সুখ দেয়া সম্ভব।

আত্মবিশ্বাস রাখুনঃ বেশ বড় পুরুষাঙ্গওয়ালা পুরুষদের আত্মবিশ্বাস অনেক উঁচু থাকে। তারা মনে করে পুরুষাঙ্গ দিয়েই সবকিছু জয় করা যায়। বিষয়টি আসলে সেরকম নয়। শুধু সঙ্গম অধিকাংশ ক্ষেত্রে নারীদের কাছে বিরক্তিকর মনে হয়। তারা চায় আদর, সোহাগ এবং দৈহিক সঙ্গম। তাই নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস রাখুন। পুরুষাঙ্গ যেন আপনার আত্মবিশ্বাসের ভিত্তি না হয়, বলেন জিম।.সব নারী আপনার জন্য নয়ঃ পুরুষের মাঝে কারো কারো যেমন বিশাল আকৃতির পুরুষাঙ্গ আছে, তেমন কিছু নারীর বেশ বড় যোনিও রয়েছে। আপনার পুরুষাঙ্গ যদি ছোট হয়, আর সঙ্গিনীর যোনি স্বাভাবিকের চেয়ে বড়, তাহলে বেশি দূর না আগালেই ভালো। তাঁকে বরং বড় পুরুষাঙ্গ আছে এমন পুরুষ বেছে নিতে বলুন। আর আপনি আপনার উপযোগী সঙ্গিনী খুঁজে নিন। দু’টোর কোনটারই অভাব নেই আমাদের বিশ্বে।

আরো খবর »