‘জাতিসংঘ ইসরায়েলের প্রতি বিদ্বেষপূর্ণ প্রতিষ্ঠান’

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: জাতিসংঘকে ইসরায়েলের প্রতি শীর্ষস্থানীয় বিদ্বেষপূর্ণ প্রতিষ্ঠান বলে মন্তব্য করেছেন সংস্থাটিতে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি নিক্কি হ্যালি। জাতিসংঘ মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি রক্ষা করার বদলে শান্তি নষ্টের চেষ্টা করছে বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি। শুক্রবার রাতে নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে এক জরুরি বৈঠক তিনি এসব কথা বলেছেন।

জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘোষণার ব্যাপারে হ্যালি বলেন, ‘জেরুজালেম যে ইসরায়েলের রাজধানী এই ঘোষণা অবশ্যই তার স্বীকৃতি।’

‘যুক্তরাষ্ট্র ফিলিস্তিনে টেকসই শান্তি চুক্তিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ’ দাবি করে হ্যালি বলেন, ‘ইসরায়েল অথবা কোনো রাষ্ট্রীয় জোট, ইসরায়েলের বিরুদ্ধে যাদের অবজ্ঞা প্রমাণিত তাদের জাতিসংঘের চুক্তি ভঙ্গ করা উচিৎ হবে না।’

বুধবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জেরুজালেম শহরকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে মার্কিন দূতাবাস তেলআবিব থেকে জেরুজালেমে স্থানান্তরের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন। বিশ্বের বহু দেশ এবং আন্তর্জাতিক সংস্থা ট্রাম্পের এ পদক্ষেপের নিন্দা জানিয়েছে। এর প্রতিবাদে শুক্রবার ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীর ও গাজায় ইসরায়েলি সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হয়েছে দুই ফিলিস্তিনি।

শুক্রবার নিরাপত্তা পরিষদে ফরাসী প্রতিনিধি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের এমন অবস্থান পুরো মধ্যপ্রাচ্যের জন্যই আরো ভয়ানক পরিণতি নিয়ে আসছে। জরুরি বৈঠকে কার্যত যুক্তরাষ্ট্র সবার প্রতিপক্ষে পরিণত হয়।

জাতিসংঘে ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রদূত রিয়াদ মনসুর ইসরায়েলের আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘনে মদদ দেবার জন্যে যুক্তরাষ্ট্রকে অভিযুক্ত করেন।

তিনি বলেন, ‘এখানে খারাপ কাজের সহযোগিতাকে স্বীকার করতে হবে। অঞ্চলটিতে ইসরায়েলের দমন পীড়ন আর বিচারহীনতার সংস্কৃতিকে যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্ত আরো উস্কে দিয়েছে।’

জাতিসংঘে নিযুক্ত রুশ প্রতিনিধি ভ্যাসিলি নেবেনজিয়া বলেন, ট্রাম্পের ঘোষণায় মস্কো মারাত্মক উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে। রাশিয়া মনে করছে, এই ঘোষণার ফলে মধ্যপ্রাচ্য সংকট আরো জটিল আকার ধারণ করবে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

Loading...

আরো খবর »