আমি চাই না অপু জল ঘোলা করুক: শাকিব

Feature Image

চিত্রনায়ক শাকিব খানের মতে, অপু বিশ্বাসের সঙ্গে তার বিয়ের দেনমোহর ৭ লাখ ১ টাকা। তার স্ত্রী অপুর দাবি, অঙ্কটা ১ কোটি ৭ লাখ টাকা। এ নিয়ে অপুর বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগও তুলেছেন তার স্বামী শাকিব। অপুও তার প্রতিবাদ করেছেন। তবে নিজেদের বিয়ে, সন্তানসহ অন্য সব ইস্যুর মতো এ ইস্যুতেও জল ঘোলা হোক তা চান না শাকিব।

শাকিব বলেন, অপু ৭ লাখ ১ টাকাকে সে উল্টো ১ কোটি ৭ লাখ টাকা বানাতে চাইছে। এই জালিয়াতির অপরাধে তাকে আইনগতভাবে শাস্তি পেতে হবে। অনেক সেলেব্রেটির জীবনে বিচ্ছেদ এসেছে। আর এজন্য জল ঘোলা করেনি কেউ। আমিও চাই না অপু এমন কিছু করুক। আর আমার ছেলে বড় হয়ে বাবা ও মা সম্পর্কে খারাপ কোনো কথা জানুক এটাও আমি চাই না।

অপু বলছেন, যদিও আমার কাছে কাবিননামার কোনো কপি নেই, তারপরও মনে পড়ছে কাবিননামায় ১ কোটি ৭ লাখ টাকাই উল্লেখ ছিল। আমাকে ডিভোর্স দিলে এই অঙ্কের টাকাই দিতে হবে।

এ নিয়ে শাকিব খান বলেছেন, আমি আর কোনো ঝামেলার মধ্যে নেই। আইনই সব দেখবে। যার সঙ্গে মতের মিল হয় না, তার সঙ্গে কখনো এক ছাদের নিচে বসবাস করা যায় না। অনেক কষ্ট সহ্য করে ৯ বছর সংসার করেছি। জয়ের (অপু-শাকিবের ছেলে) উজ্জ্বল ভবিষ্যতের কথা ভেবেই সেপারেশনের সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছি।

ডিভোর্সের সিদ্ধান্তে অপু বলেছেন, শাকিবের সিদ্ধান্ত মেনে নিতাম যদি একই ধর্মের হতাম। আমাকে ও জোর করে ধর্মান্তরিত করেছে, বিয়ে করেছে। তাই তার এই অমানবিক সিদ্ধান্ত কোনোভাবেই মেনে নেব না। শাকিবের মা, বাবাকে বলেছি আমি নামাজ, রোজা, হজ আদায় করব আর শাকিবের সঙ্গে সুখে সংসার করব। তারাও আমার কথায় সম্মত হয়েছিলেন। এরপর এমন কী ঘটনা ঘটল যে, সে আমাকে ডিভোর্স দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল? শাকিবের এখন মাথা ঠিক নেই। সে দেশে এসে যা অভিযোগ করার করুক। হায়দরাবাদে বসে কী বলল আর আমি তার পরিপ্রেক্ষিতে জবাব দিলাম, সেটা হতে পারে না। কাবিননামায় দেনমোহর কত টাকা ছিল তার সাক্ষী আছেন যারা, তারা ভালো করে জানেন।

আরো খবর »