গুজরাট নির্বাচনে কলকাঠি নাড়ছে পাকিস্তান

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: ভারতের গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনে পাকিস্তানের হস্তক্ষেপের অভিযোগ তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, কংগ্রেসের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর সাবেক এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সম্প্রতি বৈঠক করেছেন। নির্বাচনে কংগ্রেসের সিনিয়র নেতা আহমেদ প্যাটেলকে জয়ী করতে পাকিস্তানের ওই কর্মকর্তা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে অভিযোগ মোদির।

তিনি আরও বলেন, কংগ্রেস থেকে বহিষ্কৃত নেতা মনি শঙ্কর আয়ার কংগ্রেসের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে ওই কর্মকর্তার সাক্ষাতের সুবিধার্থে এক ডিনার পার্টির আয়োজন করেন। মোদির এ অভিযোগকে কাণ্ডজ্ঞানহীন বলে অ্যাখ্যা দিয়েছে কংগ্রেস। খবর এনডিটিভির।

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ওই কর্মকর্তার নাম সরদার আরশাদ রফিক। মোদি বলেন, ‘মনি শঙ্কর আয়ারের বাড়িতে কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে তার কি কথা হয়েছে তা গুজরাটের মানুষ জানতে চায়। এ বৈঠক আমার, গুজরাটের দরিদ্র মানুষ এবং সব শ্রেণীর ভারতীয়দের জন্য লজ্জাজনক।’

তিনি বলেন, এই বৈঠক নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। কংগ্রেসকে অবশ্যই ওই ঘটনার ব্যাখ্যা করতে হবে। আহমেদ প্যাটেলকে বিজয়ী করার চেষ্টা করছেন পাক সেনাবাহিনীর ওই কর্মকর্তা। আহমেদ প্যাটেল কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর রাজনীতিবিষয়ক সেক্রেটারির দায়িত্ব পালন করছেন।

মোদির এ বক্তব্যকে দায়িত্ব-কাণ্ডজ্ঞানহীন বলে আখ্যা দিয়েছে কংগ্রেস। এক বিবৃতিতে কংগ্রেস জানায়, মোদির এ বক্তব্য উসকানিমূলক। কংগ্রেসের ভাবী সভাপতি রাহুল গান্ধী বলেন, ‘মোদিজি, ভুলে যাবেন না এটা গুজরাট নির্বাচন।’

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী পদের ওজন কমে গেছে। ভালোবাসা দিয়েই প্রতিপক্ষকে হারাতে বলেছিলেন গান্ধীজি। মোদিকেও আমরা ভালোবাসা দিয়ে হারাব।’

আহমেদ প্যাটেল বলেন, ‘ভোট টানতে উন্নয়ন ছেড়ে গুজব আর মিথ্যা প্রচার করছেন প্রধানমন্ত্রী।’ কংগ্রেস নেতা আনন্দ শার্মা বলেন, ‘মোদিকে ভুলে গেলে চলবে না, তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী। তার ওই বক্তব্য দায়িত্ব-কাণ্ডজ্ঞানহীন ও উসকানিমূলক। বিজেপির কাছ থেকে আমাদের দেশপ্রেমের সনদ নিতে হবে না।’

কংগ্রেস থেকে জানানো হয়, আগামী ১৫ ডিসেম্বর সংসদে প্রকাশ্যে নরেন্দ্র মোদিকে এই বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইতে হবে।

মোদির এমন অভিযোগে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে পাকিস্তান। সোমবার এক বিবৃতিতে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, গুজরাট নির্বাচন নিয়ে মোদির বক্তব্য পুরোপুরি মিথ্যা ও বানোয়াট। গুজরাট নির্বাচনে পাকিস্তানকে না জড়াতে হুশিয়ারি দিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, ভারতের নির্বাচন বিতর্কে পাকিস্তানকে জড়ানো ঠিক হবে না। যোগ্যতা দিয়ে গুজরাট নির্বাচন জেতার পরামর্শ দিয়ে পাকিস্তান বলেছে, ষড়যন্ত্র করে নয় বরং নিজেদের যোগ্যতা দিয়ে নির্বাচনে জিতুন।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

Loading...

আরো খবর »