‘বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা টাকার গাছ না’

Feature Image

ইবি প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

এ আর রাশেদ: ‘তেল নুন পেয়াজের মত শিক্ষা কোন পণ্য নয়, শিক্ষা আমাদের অধিকার’, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা টাকার গাছ না’, ‘দরিদ্র মেধাবীদের শিক্ষার সুযোগ দিন, দিতে হবে’ এমন বিভিন্ন প্লাকার্ড হাতে নিয়ে মানববন্ধন করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা। ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষ অনার্স (স্নাতক) প্রথম বর্ষের বর্ধিত ভর্তি কমানোর দাবিতে এ মানবন্ধন করে তারা।

মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) দুপুর ১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশসন ভবন চত্বরে সাধারণ শিক্ষার্থীদের বেনারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে আগামী ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে শিক্ষার্থীরা। এই সময়ের মধ্যে যদি তাদের দাবি না মেনে নেয়া হয়, তাহলে আগামীতে অবস্থান ধর্মঘট পালনসহ গণ আন্দোলনের ঘোষণা দেয় তারা।

শিক্ষার্থীরা জানায়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে গত শিক্ষাবর্ষে মানবিক, আইন, ব্যবসায় প্রশাসন ও বিজ্ঞান অনুষভূক্ত বিভাগ সমূহে মোট ৩ হাজার দুই শত টাকা থেকে ৫ হাজার ৭ শত টাকার মধ্যে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করা যেত। তবে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে মানবিক ও আইন অনুষদভূক্ত বিভাগ সমূহে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করতে মোট ১১ হাজার ৮ শত ১৫ টাকা, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদভূক্ত বিভাগ সমূহে মোট ১২ হাজার ৪শত ১৫ টাকা এবং বিজ্ঞান অনুষদভূক্ত বিভাগ সমূহে মোট ১৩ হাজার ৩ শত ১৫ টাকা লাগবে।

এরই প্রতিবাদে গত ১০ ডিসেম্বর রোববার থেকে আন্দোলন করে আসছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রগতিশীল ছাত্রজোট। মঙ্গলবার একই প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রশাসনকে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম দেয় সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে বক্তরা বলেন, শিক্ষা কোন পণ্য নয় যে এর মূল্য দ্রব্যমূল্যের বাজার দরের মত উঠা নামা করবে। হঠাৎ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ভর্তি ফি তিন গুন বৃদ্ধি করে যে হটকারি সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়। প্রশাসনের কাছে আমরা অনতিবিলম্বে এই বর্ধিত ভর্তি ফি প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী বলেন, ‘ভর্তি ফি উন্নয়ন কমিটির সুপারিশে সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সামঞ্জস্য রেখে ভর্তি ফি বৃদ্ধি করা হয়েছে।’

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

Loading...

আরো খবর »