বাল্যবিবাহ রোধে কনের সাজে র‌্যাম্পে

Feature Image

একে একে র‌্যাম্পে হেঁটে চলেছেন সুন্দরি মডেলরা। পরনে সকলেরই জমকালো পোশাক। লেহেঙ্গা-চোলি পরে একদম কনের সাজে র‌্যাম্পে হাঁটছেন তাঁরা। নয়নাভিরাম দৃশ্যে হঠাৎ ব্যাঘাত ঘটালো স্কুল ড্রেস পরা এক বালিকা।

এক সুন্দরী মডেলের হাত ধরে র‌্যাম্পে চলে এলো সে। গায়ে সাদা সালোয়ার, আকাশি নীল কামিজ। সেটাও ফুল হাতা। স্কুলের পোশাক যাকে বলে। পিঠে একটা স্কুল ব্যাগ। কিন্তু একি মাথায় একেবারে কনের মত টিকলি, নাকে নথ, হাতে মেহেন্দি, চুরি। স্কুল ব্যাগে ঝুলছে ফুলের মালা।

আসলে অনন্য এক প্রতিবাদ জানালো স্কুল ড্রেস পরা সেই বালিকা। বাল্য বিবাহের প্রতিবাদ। ছোট্ট মেয়েটির এই অসংঙ্গতিপূর্ণ ফ্যাশন আসলে এক নিরব প্রতিবাদ। পাকিস্তানের সমাজে প্রতিস্তরে গেঁথে থাকা বাল্যবিবাহ নামক কাঁটা উচ্ছেদের প্রতিবাদ।

নারী এবং শিশু উন্নয়নে যে অনেক মাইল পেছনে পড়ে রয়েছে পাকিস্তান তাতে কোনও সন্দেহ নেই। শৈশব কাটিয়ে ওঠার আগে পাকিস্তানের অধিকাংশ মেয়েকেই বসতে হয় বিয়ের পিঁড়িতে। তারই প্রতিবাদে সচেতনতা গড়ে তুলতেই এই প্রতিবাদ বলে জানিয়েছেন ফ্যাশন শোয়ের উদ্যোক্তারা।

এই শোয়ে ফ্যাশন ডিজাইনার জিশান জানিয়েছেন, এই ফ্যাশন শোয়ে থেকে যে অর্থ আসবে সেটা সরাসরি চলে যাবে কাশ্যপ ফাউন্ডেশনে। এই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাটি এখন পাকিস্তানে বাল্যবিবাহ রোধে কাজ করছে। তাদের সেই উদ্যোগকে উৎসাহ দিতেই স্কুল ইউনিফর্মে র‌্যাম্পে নিরব প্রতিবাদ বধূ বেশে বালিকা মডেলের।

আরো খবর »