রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা শাসকগোষ্ঠীর দমননীতির বহি:প্রকাশ

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য খন্দকার মোক্তাদির হোসেনের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা দায়ের বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর দমননীতিরই আরো একটি বহিঃপ্রকাশ বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শুক্রবার দলের সহ-দফতর সম্পাদক মুহম্মদ মুনির হোসেনের পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিবৃতিতে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য খন্দকার মোক্তাদির হোসেনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে এমন অভিযোগ এনে এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদও জানান মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, বর্তমান জনবিচ্ছিন্ন সরকার তাদের কাঙ্ক্ষিত একদলীয় শাসনকে চিরস্থায়ী রূপ দিতে বিএনপি’র সিনিয়র নেতৃবৃন্দসহ বিরোধী দলগুলোর সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে প্রতিদিন মিথ্যা, উদ্ভট, বানোয়াট ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দায়ের করছে। গ্রেফতার ও জুলুম নির্যাতন চালানো হচ্ছে।

তিনি বলেন, হত্যা-গুম-অপহরণ-মিথ্যা মামলা দায়ের-গ্রেফতার এবং দমন-পীড়ন চালিয়ে বিরোধীদলকে নিশ্চিহ্ন করে বাংলাদেশে একদলীয় শাসন প্রতিষ্ঠার আকাঙ্খা বর্তমান সরকারকে হিতাহিত জ্ঞানশূন্য করে দিয়েছে। কিন্তু এ ধরনের অপকর্ম ও নির্যাতন চালিয়ে অতীতে দেশ-বিদেশের কোন স্বেচ্ছাচারী শাসকই তাদের ক্ষমতা চিরস্থায়ী করতে সক্ষম হয়নি, বর্তমান শাসকগোষ্ঠীও তাদের ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করতে পারবে না।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অবিলম্বে খন্দকার মোক্তাদির হোসেনের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত রাষ্ট্রদ্রোহের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানান।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »