ভূমিধসে চাপা পড়ল চিলির এক গ্রাম

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মূষলধারে বৃষ্টির কারণে চিলির দক্ষিণাঞ্চলে একটি গ্রাম ভূমিধসে চাপা পড়েছে এবং কয়েক ডজন ঘরবাড়ি ধ্বংস হয়েছে।

চিলির হৃদ অঞ্চলে ভিলা সান্তা লুসিয়া নামের গ্রামটিতে ভয়াবহ এই ভূমিধসে ওই গ্রামের পাঁচ জন নিহত হয়েছে ও কমপক্ষে ১৫ জন নিখোঁজ রয়েছে। গ্রামটি পর্যটনের জন্য জনপ্রিয়।

দেশটির প্রেসিডেন্ট মাইকেল ব্যাচেলেট ওই এলাকায় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন। হাজার হাজার লোক বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে এবং অন্যান্য অঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে এলাকাটি। প্রেসিডেন্ট ব্যাচেলেট বলেছেন, ‘ভিলা সান্তা লুসিয়া গ্রামের বাসিন্দাদের রক্ষায় প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছি আমি।’

চিলির রাজধানী সান্তিয়াগো থেকে প্রায় ১ হাজার ১০০ কিলোমিটার দক্ষিণে একটি উপত্যকায় গ্রামটির অবস্থান। প্রবল বৃষ্টিতে আশপাশের পাহাড় ধসে কাদা-মাটি-পাথর নেমে এসে গ্রামটি গ্রাস করেছে। স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় যে বৃষ্টিপাত হয়েছে, তা অস্বাভাবিক। সাধারণত এমন বৃষ্টিপাত ওই এলাকায় হয় না।

আগ্নেয়গিরি ও বনাঞ্চলের কারণে পর্যটনের জন্য জনপ্রিয় করকোভাদা ন্যাশনাল পার্কের পাশে অবস্থিত হলেও ভিলা সান্তা লুসিয়া গ্রাম খুব বেশি জনবহুল নয়। স্থানীয় সময় শনিবার সকালে গ্রামটিতে ভূমিধস হয়।

এদিকে, চিলির প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রোববার দ্বিতীয় দফার ভোট গ্রহণের আগের দিন ভূমিধস হলেও ভোট গ্রহণ কার্যক্রম থেমে নেই। এ নির্বাচনে চিলির প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট সেবাস্তিয়ান পিনেরা ও প্রাক্তন টিভি উপস্থাপক আলেসান্দ্রো গুইলিয়ারের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। চিলির ১ কোটি ৪০ লাখ ভোটার এ নির্বাচনে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »