ভূমিদস্যূদের বিরুদ্ধে চাঁপাইনবাবগঞ্জে হিন্দু ও আদিবাসীদের মানববন্ধন

Feature Image

জেলা প্রতিনিধি, স্বাধীনবাংলা২৪.কম

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে জাকির হোসেন পিংকু:  চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার হিন্দু মন্দিরের দেবোত্তর জমিজমা অবৈধ সেবাইত ও ভূমিদস্যূদের কবল খেকে রক্ষা এবং গোমস্তাপুর উপজেলার আদিবাসী শ্মশান অবৈধ দখল মুক্তের দাবীতে ও সদর উপজেলার আদিবাসী পল্লী উচ্ছেদ ষড়ঙন্ত্রের প্রতিবাদে মানববন্ধন, প্রতিবাদ সমাবেশ ও স্মারকলিপি পেশ কর্মসূচী পালিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে যৌথভাবে কর্মসূচীর আয়োজন করে জেলা পুজা উদযাপন পরিষদ,হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ ও আদিবাসী সমন্বয় পরিষদ। জেলার পাঁচটি উপজেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা শত শত হিন্দু ও আদিবাসী নারী,পুরুষ ও শিশু কর্মসূচীতে যোগ দেন। জেলা পুজা উদযাপন পরিষদ সভাপতি বাবুল কুমার ঘোষের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন,পরিষদের গোমস্তাপুর উপজেলা সাধারণ সম্পাদক ডলার কুমার সাহা,জেলা আদিবাসী মুক্তিমোর্চা সভাপতি বিশ্বনাথ মাহাতো,হিন্দু সম্প্রদায় ও আদিবাসী নেতা রামনাথ সাহা, অশোক কুমার দাস, শংকর রায়, ডা.মিনু বর্মন, সুমন সাহা, রঞ্জনা বর্মন,কুটিলা রাজোয়াড়,রবীন্দ্রনাথ দত্ত,শুভংকর রায় ,মিঠু সরকার,রামনাথ সাহা,গৌতম রায় প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তরা অভিযোগ করে বলেন, জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর পৌরসভাধীন শ্রী শ্রী শ্যামরায় দেবত্তর এষ্টেটের (হিন্দু মন্দির) মালিকানাধীন ৭/৮শ’ একর জমি,প্রায় ১শ’টি দোকান অবৈধ সেবাইত ক্ষিতিশ চন্দ্র আচারী দখলে নিয়ে অধর্মে লিপ্ত হয়েছেন। তিনি কিছু জমি বিক্রিও করেছেন। এছাড়া তাঁর বিরুদ্ধে নারী কেলেংকারীসহ বিভিন্ন অনৈতিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগ ও মামলা রয়েছে। সমাবেশে গোমস্তাপুর উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের ধোবাপুকুর আদিবাসী শ্মশান অবৈধ দখল মুক্ত করার দাবী জানানো হয়। এছাড়া সদর উপজেলার আমনুরা টংপাড়া আদিবাসী পল্লী উচ্ছেদে ভুমিদস্যুদের ষঢ়যন্ত্রের প্রতিবাদ করা হয় সমাবেশ খেকে। বক্তরা এসব ঘটনায় প্রশাসন ও পুলিশের ভূমিকারও সমালোচনা করেন। পরে এসব অন্যায়ের প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশ করা হয়।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »