মানিকগঞ্জে ডাক্তার ও নার্সের অবহেলায় নবজাগতকের মৃত্যুর

Feature Image

মানিকগঞ্জ থেকে জালাল উদ্দিন ভিকুঃ  মানিকগঞ্জে ডাক্তার ও নার্সের অবহেলায় উসামা এক নবজাগতকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার মধ্যরাতে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।
নিহতের বাবা আব্দুস সালাম জানান,গত বুধবার শহরের পদ্মা ক্লিনিকে উসামা জ¤œগ্রহন করেন। এরপর থেকে প্রচন্ড কান্নাকাটি করে। কান্না করতে করতে শ্বাসকষ্ঠের সমস্যা হয়। শীতের সময় হওয়ায় শ্বাসকষ্টের সাথে সাথে ঠান্ডার সমস্যা দেখা দেয়। এসব কারনে শুক্রবার বিকাল সোয়া ৫টায় মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এসময় হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত মেডিকেল অফিসার ডা.জুলহাস উদ্দিন নবজাতককে পরীক্ষা করার পর তাকে স্যালাইন ও অক্সিজেন কথা বলেন। পরে হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে ২৬ নম্বার বেডে ভর্তি করা হয়। এসময় রাতে দায়িত্বে থাকা নার্সের মধ্যে অজিফা আক্তার ও তাহমিনা ইয়াসমিন নামের দুই নার্স সোয়া ৭টার দিকে ওই নবজাতকের চিকিৎসা দিতে আসেন। চিকিৎসা দেওয়ার সময় নার্স অজিফা ও তাহমিনা নবজাকতের বাবা আব্দুস সালামের কাছে টাকা চায়। এসময় নবজাতকের বাবা ওই দুই নার্সকে ১শত টাকা দেয়। এসময় তারা আরোও টাকা দাবি করেন। কিন্তু টাকা না থাকায় ওই নার্সকে দিতে না পারায় নবজাকতকে শুধু মাত্র স্যালাইন দিয়ে চলে যায়। অক্সিজেন না দিয়ে বলেন,কোন সমস্যা হবে না। আর সমস্য হলে আমরা দেখবো। পরে হঠাৎ করে ১২টার দিকে নবজাতকের শরীর ঠান্ডা হয়ে যায়। এসময় ডাক্তার ও নার্সেদের কাছে বার বার যাওয়ার পরও তারা আসেনা।এসময় নার্সরা চা-চানাচুর খাওয়ার জন্য টাকা দাবি করেন। তখন নবজাতকের বাবা আব্দুস সালাম বলেন আমার কাছে কোন টাকা নেই। আগে চিকিৎসা করেন।পরে আপনাদের টাকা দিবোনে। কিন্তু অনেক বুঝানোর পরও তারা চিকিৎসা করে নাই। পরে রাত দেড়টার দিকে নবজাতক মারা যায়।

নিহত নবজাতকের বড় খালা রতœা আক্তার বলেন,এটা সরকারি হাসপাতাল বলে এখানে শিশুকে সুস্থা করার জন্য এনে ছিলাম।কিন্তু ডাক্তার আর নার্সদের কারনে শেষ পর্যন্ত মৃত অস্বায় নিতে হলো। ডাক্তার প্রথমেই বলে ছিলেন স্যালাইন ও অক্সিজেন দিতে। কিন্তু টাকার জন্য আমার ভাগিনাকে (বোনের ছেলে) অক্সিজেন দিলো। অথচ আমার পাশের বেডে থাকা শিশুকে অক্সিজেন দিলো। সামান্য টাকার জন্য আমার ভাগিনাকে মেরে ফেললো নার্সরা। আমি এর সুষ্ঠ বিচার চাই।

মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) বলেন, যদি আমার কোন ডাক্তারের কারনে শিশুর মৃত্য হয়। তাহলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। সে যে ডাক্তাতারি হোক না কেন। আমি শুনেছি নার্সদের অবহেলায় ওই নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে।

আরো খবর »