আমার বক্তব্য খণ্ডিত করে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ দাবি করেছেন, কর্মকর্তাদের সহনীয় মাত্রায় ঘুষ নিতে বলা প্রসঙ্গে তার বক্তব্য খণ্ডিতভাবে প্রকাশ করে বিভ্রান্তি ছাড়ানো হচ্ছে।

বুধবার শিক্ষামন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তার ওই বক্তব্যের ব্যাখ্যা তুলে ধরে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিএনপি-জামায়াত সরকারের আমলে শিক্ষা ব্যবস্থা ঘুষ আর দুর্নীতিতে ছিল আকণ্ঠ নিমজ্জিত। সে পরিস্থিতি তুলে ধরে উদাহরণ হিসেবে আমি তো সেসব পরিস্থিতি তুলে ধরেছিলাম। অথচ কতিপয় পত্রিকা ও অনলাইন মিডিয়ায় আমরা বক্তব্য খণ্ডিতভাবে প্রকাশিত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ২০০৯ সালে শিক্ষামন্ত্রণালয়ের অধীনস্ত বিভিন্ন দফতর, অধিদফতর ও সংস্থাসমূহের মধ্যে ভাবমূর্তি দিক থেকে দুর্নীতিতে সবচেয়ে ঊর্ধ্বে ছিল পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদপ্তর (ডিআইএ)। সে বিষয়গুলো তুলে ধরতে আমি সেদিন কিছু বিষয় তুলে ধরেছিলাম।

নাহিদ বলেন, গত ২৪ ডিসেম্বর শিক্ষাভবনের একটি অনুষ্ঠানে আমার বক্তব্য বিকৃত করায় জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। কতিপয় বিশিষ্টজন ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের মতামতও জনমনে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। ২০০৯ সালে দায়িত্ব গ্রহণের প্রথম দিনে শিক্ষা মন্ত্রণালয়র সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলাম। সেখানে আমি বলেছিলাম- আমাদের সম্পদ কম। যতটুকু সম্পদ আছে তার সবটুকু সুষ্ঠুভাবে কাজে লাগাতে হবে। দুর্নীতি, অপচয় এবং অপব্যয় বন্ধ করতে হবে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »