লজ্জা ঢাকতে সমাবেশে বাধা

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: ৫ জানুয়ারির ‘বিতর্কিত’ নির্বাচনের লজ্জা ঢাকতে সরকার বিএনপির ‘গণতন্ত্র হত‌্যা দিবস’র সমাবেশে বাধা দিয়েছে বলে দাবি করেছেন দলটির নেতা রুহুল কবির রিজভী।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আজ আওয়ামী লীগ ঢাকায় দুটি সমাবেশ করবে, অথচ বিএনপি জোটকে সমাবেশ করতে বাধা দেওয়া হলো। ৫ জানুয়ারি বিতর্কিত ও কলঙ্কিত নির্বাচনকে আড়াল করার জন্যই বিএনপির কর্মসূচি পালনে বাধা দিতে পোড়া মাটি নীতি অবলম্বন করেছে।’

‘ভোটারবিহীন সেদিনের নির্বাচন দেশে-বিদেশে বিতর্কিত ও কলঙ্কিত নির্বাচন হিসেবে গণ্য হয়েছে, কেউ তাদের সেই নির্বাচনকে স্বীকৃতি দেয়নি। তাদের এই লজ্জা ঢাকতে বিএনপিসহ অন্যান্য দলের কণ্ঠরোধ করতেই আজকের কর্মসূচিতে দুর্বিনীত কায়দায় বাধা দেওয়া হয়েছে’, বলেন বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব।

৫ জানুয়ারির কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে সারা দেশে বিএনপি নেতা-কর্মীদের পুলিশ হুমকি দিচ্ছে অভিযোগ করে রিজভী বলেন, ‘দিনটি উপলক্ষে দেশব্যাপী বিএনপি যাতে কালো পতাকা মিছিল করতে না পারে সেজন্য প্রশাসনযন্ত্রকে টর্চারিং মেশিন হিসেবে ব্যবহার করছে সরকার। থানার দারোগা পুলিশ গিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিএনপি কার্যালয়গুলোতে তালা লাগিয়ে দিচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন জেলা ও মহানগরে বিএনপির আজকের কর্মসূচি বানচাল করার জন্য বিএনপি কার্যালয়গুলো যাতে আজ খোলা না হয় সেজন্য পুলিশ হুমকি দিয়েছে। কিন্তু সরকারের সকল বাধা, শৃঙ্খল, নিপীড়ন, উৎপীড়ন, নিষ্ঠুরতা, নির্দয়, মামলা ও গ্রেপ্তার মোকাবিলা করেই দেশব্যাপী কালো পতাকা মিছিলের কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।’

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »