ঠাকুরগাঁওয়ে ধর্ষণ মামলা তুলে নিতে বাদীকে হুমকি

Feature Image

ঠাকুরগাঁও থেকে মোঃ জা‌হিদ হাসান মিলু : ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার বড়গাঁও ইউনিয়নের মোলানখুড়ি গ্রামে দলবেঁধে গৃহবধু ধর্ষণের মামলা তুলে নিতে বাদীকে হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রবিবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও অনলাইন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এমন অভিযোগ করেন মামলার বাদী নিজেই।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মামলার বাদী গৃহবধু অভিযোগ করে বলেন, গত শুক্রবার রাত (২৯ ডিসেম্বর) দেড়টার দিকে বাড়ি থেকে ওই গৃহবধূকে অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে যায় স্থানীয় জামাল উদ্দীন, রবিন চন্দ্র রায়, মানিক, লিয়াকত আলী, হামিদুর, আব্দুল গফুর ও আব্দুর রশিদ। এরপর তাকে বাড়ি থেকে প্রায় ৬০০ গজ দূরে সেনুয়া নদীর পাড়ে একটি বাঁশঝাড়ে নিয়ে ধর্ষণ করে। এরপর সেখান থেকে তাকে এক কিলোমিটার উত্তরে একটি আবাদি জমিতে নিয়ে বাঁশের খুঁটি পুতে তার সঙ্গে হাত ও পা বেঁধে আবার ধর্ষণ করা হয়। এসময় তিনি চিৎকার করলে তার গলা ছুরি দিয়ে কেটে দিয়ে পালিয়ে তারা। শনিবার (৩০ ডিসেম্বর) সকালে স্থানীয়রা হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

তিনি বলেন, শনিবার রাতে আমি নিজে বাদী হয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগে মামলা করি। মামলায় ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার বড়গাঁও ইউনিয়নের মোলানখুড়ি গ্রামের জামাল উদ্দীন (৪৫), রবিন চন্দ্র রায় (৩৭), মানিক (৩২), লিয়াকত আলী (৩৮), হামিদুর রহমান (৩০), আব্দুল গফুর (৩৫), আব্দুর রশিদসহ (৩৯) সাত জনের নাম উল্লেখ করা হয়।

পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই মামলার আসামিদের মধ্যে রবিন চন্দ্র রায় ও আব্দুল গফুরকে গ্রেপ্তার করে। এদিকে মামলার মূল আসামী জামাল উদ্দীনসহ অন্য আসামীরা এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ এখন পর্যন্ত তাদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

মামলার মূল আসামীসহ অন্য আসামীরা মামলা তুলে নিতে আমাকে ও আমার পরিবারের সদস্যদের ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে আসছে বলে অভিযোগ করেন গৃহবধু।

তিনি দ্রুত আসামিদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি (অপারেশন) মো. কফিল উদ্দীন বলেন, মামলার আসামীদের গ্রেপ্তার করার জন্য আমরা প্রতিদিন অভিযান চালাচ্ছি। আশা করি খুব শীঘ্রই আসামীদের গ্রেপ্তার করতে পারব।

বাদীকে হুমকি দেয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত বাদী থানায় কোন অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আরো খবর »