এখনো সন্ধান মেলেনি নিখোঁজ ৩২ নাবিকের

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: চীনের পূর্ব উপকূলে শনিবার রাতে একটি কার্গো জাহাজের সঙ্গে একটি তেলের ট্যাংকারের সংঘর্ষের ঘটনার পর এখন পর্যন্ত দুই বাংলাদেশিসহ ৩২ জন নাবিক নিখোঁজ রয়েছেন। নিখোঁজদের উদ্ধারে জরুরি উদ্ধার তৎপরতা চলছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার কোস্ট গার্ড জানিয়েছে, সোমবার সকালে তেলের ট্যাংকারটিতে আগুন জ্বলতে দেখা গিয়েছে। তাছাড়া জাহাজে থাকা তেল সাগরের পানিতে পড়ছে।

রবিবার চীনের পরিবহন মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলেছে, শনিবার রাতে সাংহাই থেকে ১৬০ নটিক্যাল মাইল পূর্বে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এতে পানামার পতাকাবাহী সানচি নামের ট্যাংকারের সব নাবিক নিখোঁজ হন। তাদের মধ্যে ৩০ জন ইরানি ও দুজন বাংলাদেশি। তবে কার্গো জাহাজে থাকা চীনের ২১ নাবিকের সবাইকে উদ্ধার করা হয়েছে।

মার্কিন নৌবাহিনী এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তাদের একটি সামরিক হেলিকপ্টার উদ্ধার কাজে সহযোগিতা করছে।হেলিকপ্টারটি তিন হাজার ৬০০ নটিক্যাল বর্গমাইল এলাকাজুড়ে তল্লাশি চালিয়েছে। কিন্তু নিখোঁজ ৩২ জন নাবিকদের মধ্যে একজনেরও সন্ধান পাননি তারা।

ইরানের গ্লোরি শিপিং পরিচালিত তেলের ট্যাংকারটি দক্ষিণ কোরিয়ায় যাচ্ছিল। ট্যাংকারে ১ লাখ ৩৬ হাজার টন তেল ছিল। আর হংকংয়ের পতাকাবাহী কার্গো জাহাজে ছিল ৬৪ হাজার টন খাদ্যশস্য।

চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়ার খবরে বলা হয়েছে, নিখোঁজ নাবিকদের উদ্ধারে চীন চারটি জাহাজ এবং তিনটি ক্লিনিং বোট পাঠিয়েছে। এ কাজে সহায়তার জন্য দক্ষিণ কোরিয়া একটি হেলিকপ্টার ও কোস্টগার্ডের একটি জাহাজ পাঠিয়েছে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »