দায়িত্ব নিয়ে লঙ্কার ইতিহাসও পাল্টে ছাড়লেন হাথুরু

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ক্রীড়া ডেস্ক:  শ্রীলঙ্কার দায়িত্ব নিয়ে দেশটির ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথমবারের মতো নির্বাচক প্যানেলে ঢুকেছেন বাংলাদেশের সাবেক কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। তার ইচ্ছাতে বাংলাদেশও নজিরবিহীন দ্বিস্তর বিশিষ্ট নির্বাচক কমিটি চালু করেছিল।

শ্রীলঙ্কার দায়িত্ব নেয়ার সময় হাথুরুসিংহে শর্ত দেন নির্বাচক কমিটিতে তাকে রাখতে হবে। কিন্তু শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের গঠনতন্ত্রে কোচের নির্বাচক হওয়ার নিয়ম না থাকায় দেখা দেয় সমস্যা। হাথুরু সেটা মানতে চাননি। তাই বাধ্য হয়ে নতুন উপায় বের করতে হয়েছে দেশটির বোর্ডকে। এবং সেটা অনেকটা বাংলাদেশের মতো।

অধিনায়ক এবং ম্যানেজারকে নিয়ে এখন থেকে চূড়ান্ত দল নির্বাচন করবেন হাথুরুসিংহে। কোনো সিরিজের আগে মূল নির্বাচকরা একটি দল নির্বাচন করে তাদের কাছে দিবেন। সেখান থেকে চূড়ান্ত একাদশ নির্ধারিত হবে ম্যানেজার, অধিনায়কের এবং ওই কোচের সিদ্ধান্তে। এই তিনজনকে বলা হচ্ছে সফরকালীন নির্বাচক প্যানেল।

রোববার বোর্ডের সভায় এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। বাংলাদেশের মতো শ্রীলঙ্কারও কয়েকজন বোর্ডকর্তা এমন প্রস্তাবের বিরোধিতা করেন। শেষ পর্যন্ত ‘সমঝোতার মাধ্যমে’ সবাই একমত হন।

বিসিবির নাজমুল হাসান পাপনের মতো লঙ্কান বোর্ডের সভাপতি থিলাঙ্গা সুমাথিপালা হাথুরুসিংহেকে ‘শতভাগ সমর্থন’ জুগিয়ে যাচ্ছেন। সভা শেষে তিনি বলেন, ‘মি. হাথুরুসিংহে আমাদের সঙ্গে লম্বা সময় ধরে আলোচনা করেন। আমরা দেখেছি যে ভালো পারফর্ম্যান্স চাইলে তাকে শতভাগ ব্যাকিং দিতে হবে।’

জানুয়ারিতে বাংলাদেশ সফর দিয়ে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে নতুন যাত্রা শুরু হচ্ছে হাথুরুসিংহের। এর আগেও একবার দলটির সহকারী কোচ ছিলেন তিনি। সেবার মতের মিল না হওয়ায় চাকরি ছেড়ে দেন।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »