মুক্তি পাচ্ছে ‘পাগল মানুষ’, তবুও কষ্ট পাচ্ছেন শাবনূর

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম
বিনোদন প্রতিবেদক: ‘এম এম সরকার ছিলেন একজন গুণী নির্মাতা। তাঁর বেশির ভাগ ছবিই ব্যবসাসফল হয়েছে। কিন্তু এই ছবির কাজের সময় তাঁকে আমরা হারিয়েছি। অবশেষে সেই ছবি মুক্তি পাচ্ছে। তবে খুব কষ্ট লাগছে, আজ যখন ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে, তখন পরিচালক আমার পাশে নেই। তিনি আমাকে খুব স্নেহ করতেন।’ বললেন চিত্রনায়িকা শাবনূর। আগামী শুক্রবার প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে ‘পাগল মানুষ’ ছবিটি। এ উপলক্ষে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর এক রেস্তোরাঁয় সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয়। এখানে উপস্থিত ছিলেন ছবির দুই শিল্পী শাবনূর ও নবাগত শাহের খান।

‘পাগল মানুষ’ ছবিতে শাবনূর চুক্তিবদ্ধ হন ২০১১ সালের অক্টোবর মাসে। ছবির শুটিং শুরু হওয়ার পর ২০১২ সালের ২৯ ডিসেম্বর হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান পরিচালক এম এম সরকার। বন্ধ হয়ে যায় ছবির শুটিং। পরে ২০১৬ সালে ছবির কাজ শেষ করেন পরিচালক বদিউল আলম খোকন। এম এম সরকারের একসময়ের সহকারী ছিলেন তিনি। বললেন, ‘এটি আমার ওস্তাদের শেষ কাজ। শুটিংয়ের সময় তিনি মারা যান। ছবিটা শেষ করা আমার দায়িত্ব ছিল। এবার মুক্তি দিতে পারলে শান্তি পাব। ছবিতে পরিচালক হিসেবে ওস্তাদের নামই যাবে।’

সংবাদ সম্মেলনে শাহের খান বলেন, ‘শাবনূর আমার স্বপ্নের নায়িকা। সিনেমায় আমি একেবারেই নতুন। প্রথম সিনেমায় তাঁকে নায়িকা হিসেবে পেয়েছি, এ আমার পরম পাওয়া। শাবনূর আমাকে নানাভাবে সহযোগিতা করেছেন। কীভাবে অভিনয় করতে হয়, তা হাতে ধরে শিখিয়েছেন।’

শাবনূর জানান, ‘পাগল মানুষ’ ছবিটি তিনি প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে দেখবেন। দর্শকদেরও প্রেক্ষাগৃহে যাওয়ার জন্য তিনি অনুরোধ করেছেন। পারিবারিক ও রোমান্টিক সেন্টিমেন্ট নিয়ে তৈরি হয়েছে ‘পাগল মানুষ’।

শাবনূরের সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘কিছু আশা কিছু ভালোবাসা’। ছবিটি মুক্তি পায় ২০১৩ সালের ২০ সেপ্টেম্বর।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »