মুসলিম রোহিঙ্গা হত্যার কথা স্বীকার করল মিয়ানমার সেনাবাহিনী

Feature Image

 

শুরু থেকেই রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতনের অভিযোগ অস্বীকার করে আসলেও অবশেষে রোহিঙ্গা হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। দেশটির সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইয়াং, দশ জন মুসলিম রোহিঙ্গাকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন।

বুধবার মিয়ানমার সেনাপ্রধান তার ফেসবুক পেইজে জানান, গ্রামবাসী ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মিলে ‘বাঙালি জঙ্গি’দের বিরুদ্ধে এ হত্যাকাণ্ড চালিয়েছে। তাদের প্রথমে আটক ও পরে হত্যা করা হয়। তার ভাষায়, ‘ইনদিন গ্রামের কয়েকজন গ্রামবাসী এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কয়েকজন সদস্য স্বীকার করেছেন যে তারা ১০ জন বাঙালি জঙ্গিকে হত্যা করেছেন।’

জানা যায়, ওই হত্যাকাণ্ড চালানো হয় ২০১৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর। পরে নিহতদের গণকবর খুঁজে পাওয়ার পর এ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে গত মাসে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করে মিয়ানমার। সেই তদন্তের প্রেক্ষিতেই ফেসবুক পোস্টে এ তথ্য জানালেন দেশটির সেনাপ্রধান।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২৫ আগস্ট নিধনযজ্ঞ শুরুর পর এটাই মিয়ানমার সেনাবাহিনীর প্রথম স্বীকারোক্তি। এই হত্যার জেরেই মায়ানমার ছেড়ে জীবন বাঁচাতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসেন ছয় লক্ষাধিক রোহিঙ্গা। জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন এই ঘটনাকে জাতিগত নিধনযজ্ঞের ‘পাঠ্যপুস্তকীয় উদাহরণ’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে।

সূত্র: ইন্ডিপেনডেন্ট

আরো খবর »