ভয়ঙ্কর স্থান ,প্রবেশের ফলে মৃত্যু হতে পারে!

Feature Image

 

বিশ্বের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর স্থান হিসেবে পরিচিত ‘পানমুনজম’। যেখানে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে বলে জানা যায়। যদিও এখানে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হয়েছে। তবুও ওখানে যারাই আসে, তাদের প্রবেশের আগে এমন এক ডকুমেন্টে সই করিয়ে নেওয়া হয়। যেখানে লেখা থাকে, এই স্থানে প্রবেশের ফলে মৃত্যু হতে পারে বা আঘাত লাগতে পারে। কিন্তু কেন এমন বলা হয় জানেন কী?

উত্তর কোরিয়া এবং দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে উইন্টার অলিম্পিক নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। আগামী ফেব্রুয়ারিতে দক্ষিণ কোরিয়ায় এই অলিম্পিক হওয়ার কথা। এতে উত্তর কোরিয়ার টিম-ও অংশগ্রহণ করবে। এই নিয়ে পানমুনজমে দুই দেশের প্রতিনিধিরা আলোচনায় বসেছে। ১৯৫৩-তে গৃহযুদ্ধের পরে এখানে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হয়। অসামরিক এলাকা বলেও ঘোষণা করা হয়। এখানে অস্ত্র রাখার অনুমতিও নেই।

 

এতকিছুর পরেও কিন্তু ভয় জড়িয়ে রয়েছে এই স্থানকে। উত্তর কোরিয়া থেকে পালিয়ে বহু মানুষ এই এলাকা দিয়েই অন্যত্র যায়। আর এর মাঝে ধরা পড়ে গেলে উত্তর কোরিয়ার সেনারা গুলিতে ঝাঁঝরা করে দেয় সেই ব্যক্তির দেহ। এক সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, এই পানমুনজমে এমন এক কনফারেন্স রুম রয়েছে, যা দুই দেশের জমির ওপর নির্মিত।

আরো খবর »