আপনি কি দুধে ধোয়া তুলসি পাতা নাকি?

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

বিনোদন ডেস্ক : ‘একটি নিউজ দেখে সারাদিন সময় বের করার চেষ্টা করছিলাম। চাইছিলাম ফেসবুক লাইভে আসতে। কারণ নিউজটি দেখার পর থেকেই আমার গা কিটমিট করছিল, সহ্য করতে পারছিলাম না।

একজন আপা মিডিয়া নিয়ে তার লাইফের ইতিহাস বলেছেন। মিডিয়া অনেক খারাপ! মিডিয়া যদি অনেক খারাপই হয়ে থাকে, মিডিয়ার মানুষজন যদি অনেক খারাপই হয়ে থাকে তবে আপনি কেন মিডিয়াতে আসলেন? আপনার বাপ-মা আপনাকে আটকে রাখতে পারে নাই? আমি অনেকটা সময় ধরে মিডিয়ার বাইরে আছি। কিন্তু একটা সময় আমি মিডিয়াতে ছিলাম। এজন্য নিউজটি পড়ে আমার গায়ে খুব লেগেছে। মিডিয়ার মানুষজনকে এতটা নিচে নামানোর তো কোনো কারণ নাই, তাই না!

আপা বিশ্ববিখ্যাত প্রিন্সেস ডায়না। যার কারণে সবাই তাকে কফি খাওয়ার জন্য, এই করার জন্য, সেই করার জন্য প্রস্তাব দেন। মিডিয়া যদি এতই খারাপ হয়ে থাকে তবে একজন সুবর্ণা মুস্তাফা, একজন বিপাশা হায়াত, একজন শমী কায়সা হতো না। শোনেন, খারাপ ভালো সব জায়গাতেই আছে। নিজে ভালো থাকলে সবকিছুই ভালো। ম্যানেজ করা বিষয়টি শিখতে হবে।

আপনি একদিন হলেও মিডিয়াতে কাজ করেছেন। কিন্তু এখন আপনাকে কেউ কাজে নেয় না। আর এজন্য আপনি মিডিয়াকে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দিবেন। আর নিজেকে সতী সাবিত্রী ভেবে নিজেকে দুধে ধোয়া তুলসি পাতা বানায়া ফেলবেন। আপনি দুধে ধোয়া তুলসি পাতা না। আপনি যদি দুধে ধোয়া তুলসি পাতা হতেন তবে মিডিয়া নিয়ে মানুষের সামনে এতটা খারাপভাবে বলতে পারতেন না। আপনাকে যে কজন মানুষ চিনে সেটা কিন্তু এই মিডিয়ার বদৌলতেই চিনে।

আপনাকে এখন কাজে নেয় না এজন্য আপনি নেতিবাচক কথা বলে বিখ্যাত হতে চান? এগুলো করে লাভটা কী? উপরের দিকে থুথু ফেললে সেটা নিজের শরীরেই পড়ে। পাবলিকের সামনে মিডিয়াকে খারাপ না করে আগে আমরা ভালো হই। আজকে আপনি কাজ করেন না তাতে কি? আপনি বরং নতুন আরেকজন শিল্পীকে কাজ করতে দেন। তার জায়গা এটা।’ ফেসবুক লাইভে এসে এভাবেই কথাগুলো বলেন টেলিভিশন অভিনেত্রী নাফিজা জাহান।

সম্প্রতি লাক্স তারকা অভিনেত্রী ফারিয়া শাহরিন একটি সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘‘অনেক বড় ব্যবসায়ীর কাছ থেকে আপত্তিকর প্রস্তাব পেয়েছি। তারা আমার সঙ্গে ঘুরতে চান। সরাসরি বলেছে, ‘কত টাকা হলে আপনি যাবেন?’’ ফারিয়ার এ সাক্ষাৎকারটি প্রকাশের পরই ফেসবুক লাইভে এসে এসব কথা বলেন নাফিজা। তবে ভিডিওতে কোনো অভিনেত্রীর নাম উল্লেখ করেননি তিনি।

২০০৬ সালে লাক্স-চ্যানেল আই সুন্দরী খেতাব পাওয়ার পর ওই বছরই সালাহউদ্দিন লাভলুর ‘হোমিও রোমিও’ নামে এক ঘণ্টার নাটকে অভিনয় করেন। এর কয়েক দিন পর শুভ্র খানের ‘সাদা রঙের স্বপ্ন’ নামে ধারাবাহিকে কাজ করেন তিনি। ওই বছরই পয়লা বৈশাখের জন্য নির্মিত মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘উপসংহার’ নামে একটি নাটকেও অভিনয় করেন তিনি। এই নাটকটিই নাফিজার অভিনয়জীবনের টার্নিং পয়েন্ট বলেও মনে করেন তিনি। নাফিজা বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছেন। অনেক দিন ধরেই মিডিয়ার বাইরে রয়েছেন এই অভিনেত্রী।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »