নাখালপাড়ায় নিহত এক ‘জঙ্গি’ কাজেম আলী স্কুলের ছাত্র

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ঢাকা: রাজধানীর পশ্চিম নাখালপাড়ার জঙ্গি আস্তানা ‘রুবি ভিলায়’ র‌্যাবের অভিযানে নিহত তিন জঙ্গির মধ্যে আরও একজনের পরিচয় মিলেছে।

তার নাম নাফিস উল ইসলাম ওরফে আবদুল্লাহ। ১৬ বছর বয়সের এ কিশোরটি অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিল। তার বাড়ি চট্টগ্রামে। তিন মাস আগে সে চট্টগ্রাম থেকে নিখোঁজ হয়েছিল। বৃহস্পতিবার রাতে তার বাবা নজরুল ইসলাম ছবি দেখে তাকে শনাক্ত করেন। গত ১১ জানুয়ারি রাতে পশ্চিম নাখালপাড়ায় জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পায় র‌্যাব। পরদিন সকালে র‌্যাব তিন জঙ্গি নিহত হওয়ার খবর জানায়। নিহত তিন জঙ্গির মধ্যে গত ১৪ জানুয়ারি একজনের পরিচয় শনাক্ত হয়। অপর দুজনের পরিচয় অজানা ছিল। এ অবস্থায় র‌্যাব বৃহস্পতিবার ওই দুজনের ছবি প্রকাশ করে।

এরপর নাসিফের বাবা নজরুল ইসলাম তার ছেলেকে শনাক্ত করেন। নাফিস কাজেম আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র। তাদের বাড়ি চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার পশ্চিম কানাইমাদারী গ্রামে। চকবাজার থানার চট্টগ্রাম কলেজের পূর্বগেট এলাকায় থাকত নাফিসের পরিবার। গত ৬ অক্টোবর নিখোঁজ হয় নাসিফ। নিখোঁজের পরদিন নগরীর চকবাজার থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন তার বাবা নজরুল ইসলাম। এ প্রেক্ষিতে সন্ধানে নেমে জঙ্গি সম্পৃক্ততা পায় পুলিশ। পরে নব্য জেএমবির সঙ্গে সম্পৃক্ততা পাওয়ায় জিডি তদন্তের দায়িত্ব নেয় চট্টগ্রাম নগর পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট।

এর সূত্র ধরে গত ১ জানুয়ারি নগরের সদরঘাট থানার মাদারবাড়ি বালুর মাঠের পাশে মিনু ভবনের পঞ্চম তলা থেকে নব্য জেএমবির দুই আত্মঘাতী সদস্যকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের সঙ্গে নাসিফের যোগাযোগ ছিল। তাকে ধরতে ঢাকার যাত্রাবাড়ীতে অভিযানও চালানো হয়। কিন্তু পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সেদিন পালিয়ে যায় নাফিস। এরপর নাখালপাড়ায় আস্তানায় অবস্থান নিয়ে র‌্যাবের অভিযানে নিহত হয় সে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »