নবজাতকের প্রাণ বাঁচালো ৩ কুকুর রাতভর পাহারা দিয়ে

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

নিউজ ডেস্ক:  তিনটি কুকুরের জন্য রক্ষা পেলো ফেলে দেওয়া এক নবজাতক। কে বা কারা গ্রামের রাস্তার পাশে শিশুকন্যাটিকে ফেলে দিয়েছিল। প্রবল ঠান্ডার মধ্যে পড়ে থাকা ওই নবজাতককে রাতভর পাহারা দিলো এলাকার তিনটি কুকুর। ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ে এ ঘটনা ঘটেছে। খবর এবেলার।

স্থানীয়রা জানান, দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ের হাটপুকুরিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ডেবিসাবাদ গ্রামে রোববার সকালে ওই নবজাতককে উদ্ধার করা হয়। বাড়ির পাশে সারা রাত কুকুরের চিৎকার শুনে বিরক্ত হয়ে ভোরে বাড়ির পেছনে যান গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল গনি মোল্লা। গিয়েই অবাক হয়ে তিনি দেখেন, তিনটি কুকুর পাহারা দিচ্ছে এক নবজাতককে।

খবর জানাজানি হতেই ঘটনাস্থলে ভিড় করেন গ্রামবাসী। কিন্তু ওই নবজাতকের কাছে কাউকে ঘেঁষতে দিচ্ছিল না কুকুরগুলো। এই দৃশ্য দেখে অবাক হয়ে যান উপস্থিত সবাই। এরপর গ্রামের কয়েক যুবকের চেষ্টায় কুকুর তিনটিকে সরিয়ে ওই নবজাতককে উদ্ধার করা হয়।

পরে গ্রামের এক দম্পতি শিশুটিকে নিজের বাড়িতে নিয়ে যান। প্রাথমিক শুশ্রুষার পর তাকে দুধ খাওয়ানো হয়। ওই দম্পতির কোনো কন্যাসন্তান না থাকায় তারা শিশুটিকে দত্তক নিতে চান। পরে ঘটনাস্থলে আসেন চাইল্ড লাইনের কর্মীরা। শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করান তারা।

তবে কে বা শিশুটিকে ফেলে গেছে তা জানা যায়নি। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে ক্যানিং থানা পুলিশ।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »