পদ্মা সেতুর দ্বিতীয় স্প্যান জাজিরা প্রান্তে

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

শরীয়তপুর:  শরীয়তপুরে পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের মাওয়া কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে স্টিলের অবকাঠামো দ্বিতীয় স্প্যানটি জাজিরার নাওডোবা প্রান্তে পৌঁছেছে। সোমবার রাতে ‘তিয়ান ই’ ক্রেনে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্য ও তিন হাজার ১৪০ টন ওজনের স্প্যানটি আসে।

দ্বিতীয় স্প্যানটি বসানো হলে সেতুটির ৩০০ মিটার দৃশ্যমান হবে। ৩৮ ও ৩৯ নম্বর পিলারের ওপর এই স্প্যানটি বসবে। প্রতিটি স্প্যানের দৈর্ঘ্য ১৫০ মিটার। এমন ৪১টি স্প্যান জোড়া দিয়েই সেতুটি তৈরি হবে।

গত ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর পিলারের মধ্যে পদ্মা সেতুর প্রথম স্প্যান বসানো হয়। এর পাঁচ মাসের ভিতর আরেকটি স্প্যান বসতে যাচ্ছে।

পদ্মা সেতু প্রকল্পের পরিচালক শফিকুল ইসলাম জানান, ইতোমধ্যে দ্বিতীয় স্প্যান বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। এ সপ্তাহের মধ্যেই তা পিলারের ওপর বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে। স্টিলের স্প্যানটির ওজন প্রায় ৩ হাজার ১৪০ টন। এটি শক্তিশালী ক্রেন দিয়ে মাওয়া প্রান্ত থেকে আনা হয়েছে। জাজিরার নাওডোবা প্রান্তে পিলারটি বসানো হবে। আগের স্প্যানটিও জাজিরার নাওডোবা প্রান্তে বসানো হয়।

শফিকুল ইসলাম জানান, কুয়াশার কারণে স্প্যান বসানোর কাজে কিছুটা ব্যাঘাত হয়েছে। ১২টি স্প্যান প্রকল্প এলাকায় আছে। তৃতীয় স্প্যানটিও বসানোর মতো অবস্থায় আছে। এখন কাজ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে।

বর্তমান সরকার চলতি বছরের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতু চালু করার ঘোষণা দিয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত অর্ধেক কাজ হয়েছে। ফলে নির্ধারিত সময়ে সেতুর কাজ শেষ হওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে বলে জানান তিনি।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »