চুয়াডাঙ্গায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

চুয়াডাঙ্গা: জেলার  জীবননগরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ইমান আলী (৩৮) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।

পুলিশের দাবি, ইমান আলী আন্তঃজেলা ডাকাত দলের প্রধান ও শীর্ষ সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে বোমাবাজি, চাঁদাবাজি, ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টার দিকে উথলী ইউনিয়নের সন্তোষপুর-আন্দুলবাড়িয়া সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইমান আলী চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের হাটচাঁদপুর গ্রামের ফকর আলী বেপারির ছেলে। ঘটনাস্থল থেকে একটি শুটারগান, দুই রাউন্ড কার্তুজ, চারটি ককটেল ও পাঁচটি চাপাতি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

চুয়াডাঙ্গার সহকারী পুলিশ সুপার আহসান হাবীব পিপিএম জানান, রাতে ১০-১২ জনের একদল ডাকাত সন্তোষপুরে একটি আমবাগানে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে এমন গোপন সংবাদ আসে। এর ভিত্তিতে সেখানে অভিযানে গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে কয়েকটি ককটেলের ফাটায় ডাকাত দল। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে।

পরে ঘটনাস্থল থেকে ইমান আলীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। লাশ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

পুলিশ সুপার জানান, নিহত ইমান আলী আন্তঃজেলা ডাকাত দলের প্রধান। তার বিরুদ্ধে বোমাবাজি, চাঁদাবাজি, ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »