প্রথম টেস্ট থেকে ছিটকে গেলেন সাকিব

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ক্রীড়া ডেস্ক:  শ্রীলঙ্কার সঙ্গে প্রথম টেস্টে খেলতে পারবেন না সাকিব আল হাসান। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ফিল্ডিংয়ের সময় হাতে পাওয়া চোট তাকে ঠেলে দিয়েছে পুরো সিরিজেই অনিশ্চয়তার মুখে। অধিনায়কত্ব ফিরে পাওয়ার পর এটিই হতো সাকিবের প্রথম টেস্ট।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের তরফ থেকে সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সে তথ্যের সত্যতা জানিয়ে দেয়া হলো।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফাইনালের দিনেই বড় দুঃসংবাদ এলো বাংলাদেশের জন্য। ফিল্ডিংয়ের সময় হাতের আঙুলে ব্যথা পাওয়ায় প্রথমে মাঠ ছেড়ে ওঠে যান সাকিব। এরপর ছুটতে হয়েছিল হাসপাতালেও। তখনই জানা গিয়েছিল, লঙ্কানদের বিপক্ষে ফাইনালে আর ব্যাটিংয়ে নামা হচ্ছে না তার। শেষ পর্যন্ত জানা গেল, চট্টগ্রামে শুরু হতে যাওয়া শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্টে সিরিজের প্রথম টেস্টেও খেলতে পারবেন না তিনি।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিসিবির ডাক্তার দেবাশিষ চৌধুরীর বক্তব্য দেয়া হয়েছে। সেখানে ডাক্তার দেবাশিষ চৌধুরী বলেন, ‘আঙ্গুলের এক্স-রে করা হয়েছে। এক্স-রেতে কোনো ছিড় ধরা পড়েনি। তবে, বাম হাতের কনিষ্ঠ আঙ্গুলে সেলাই দিতে হয়েছে। তাকে একজন কসমেটিক সার্জন পরীক্ষা করে দেখেছেন এবং প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দিয়েছেন। তবে, ব্যাথা পাওয়া আঙ্গুল সেরে উঠতে আরও এক সপ্তাহ সময় লাগবে। এর অর্থ, চট্টগ্রামে ৩১ জানুয়ারি শুরু হতে যাওয়া টেস্টে খেলতে পারছেন না সাকিব।’

সাকিবের ইনজুরির ঘটনা ঘটে শ্রীলঙ্কার ব্যাটিংয়ের ৪২তম ওভারের সময়। তখন বল করছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। প্রথম বলেই দিনেশ চান্দিমাল এক্সট্রা কভারে ঠেলে দিয়ে এক রান নিতে গেলেন। দৌড়ে এসে ফিল্ডিং করার চেষ্টা করলেন সাকিব। বল ধরতে পারলেন না। কিন্তু পড়ে গিয়ে বাম হাতের আঙ্গুলেই দারুণ ব্যথা পেয়ে গেলেন।

ফিল্ডিং করতে গিয়ে সাকিব যে পড়লেন, পড়েই থাকলেন। উঠছেন না দেখে এগিয়ে এলেন মোস্তাফিজ। অবস্থা দেখে ড্রেসিং রুমে ফিজিওর সাহায্য চাইলেন। এগিয়ে এলেন মাশরাফিসহ অন্যসব খেলোয়াড়। বেশ কিছুক্ষণ পর সাকিব ওঠে দাঁড়ালেও ফিজিওর সঙ্গে করে চলে গেলেন মাঠের বাইরে।

এরপর সরাসরি হাসপাতালে। স্ক্যানে চিড় ধরা পড়েনি। তবে বিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বাঁ হাতের কনিষ্ঠ আঙুলে সেলাই লাগতে পারে সাকিবের। ফলে লঙ্কানদের বিপক্ষে চলতি ফাইনাল ম্যাচটিতে ব্যাটিংয়ের সম্ভাবনা একদম নেই বললেই চলে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »