সেতু ভেঙে পানিতে বাস, ৩৬ মরদেহ উদ্ধার

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

অার্ন্তজাতিক ডেস্ক:  পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার দৌলতাবাদে যাত্রীবাহী একটি বাস সেতু ভেঙে নিচে বিলে পড়ে যাওয়ার ঘটনায় নিহতের সংখ্যা ৩৬ জনে দাঁড়িয়েছে। সোমবার সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটলেও বিকেলে পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা জানা যায়নি।

আনন্দবাজার জানিয়েছে, বিকেল ৫টায় বাস থেকে মরদেহ বের করা শুরু হয়। পত্রিকাটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সামনের গাড়িকে ওভারটেক করতে গিয়ে মুর্শিদাবাদের বালির ঘাট সেতু থেকে ভাণ্ডারদহ বিলে পড়ে যায় বাসটি। হাসপাতালে এখনও ভর্তি আছেন ১৩ জন। নদিয়ার করিমপুর থেকে মুর্শিদাবাদের বহরমপুর হয়ে মালদহে যাওয়ার কথা ছিল বাসটির।

এদিকে দুর্ঘটনার পর উদ্ধারকাজ শুরু হতে দেরি হওয়ার কারণে পুলিশের একটি গাড়িতে আগুন দেন স্থানীয়রা। ইটপাটকেল নিক্ষেপও করা হয়।

চারটি ক্রেন দিয়ে টেনে বাসের সামনের দিকটা পানি থেকে একটু তোলার পর মরদেহ বের করা শুরু হয়। রাত পৌনে ৮টায় পানি থেকে তোলা হয় ফাঁকা বাসটি।

কলকাতার গণমাধ্যমে বলা হচ্ছে, বহরমপুর থেকে কলকাতা যাওয়ার ট্রেন ছাড়ে সকাল ৭টা ৫৫ মিনিটে। সেটি ধরতে অনেকেই এই বাসে আসতেন। ফলে, চালকের তাড়া থাকত সময়ে পৌঁছনোর।

চালকের পিছনে বসা এক যাত্রীর দাবি, দুর্ঘটনার সময় চালক মোবাইলে কথা বলছিলেন।

নিহতদের মধ্যে ২৪ জন পুরুষ, ১০ জন নারী ও দুটি শিশু রয়েছে।

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »