ভারতে দুই কোটি মেয়েশিশুর জন্ম ‘অপ্রত্যাশিত’!

Feature Image

প্রযুক্তির কল্যাণে অনেক আগে থেকেই জানা যায়, গর্ভের সন্তান ছেলে নাকি মেয়ে হবে। সে কারণে অপছন্দ হলে অনেকেই পেটের বাচ্চা নষ্ট করে দেন। গর্ভের সন্তান মেয়ে হলে এই প্রবণতা বেশি দেখা যায়।

ভারতের সরকারি এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জন্মের আগে থেকেই মেয়ে নয়, বরং ছেলে সন্তান চান এমন ইচ্ছার কারণে সে দেশে প্রায় দুই কোটি ১০ লাখ মেয়েকে ‘অপ্রত্যাশিত’ বলা হয়েছে।

দেশটির অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ছেলে সন্তান না হওয়া পর্যন্ত অনেক দম্পতি সন্তান নিতেই থাকেন। এটা লিঙ্গভিত্তিক গর্ভপাতেরই কৌশলী রুপ।

 

ভারতে ভ্রুণের লিঙ্গ পরীক্ষা অবৈধ। তার পরেও সেখানে অহরহ চলছে ভ্রণ নির্ণয় এবং গর্ভপাতের ঘটনা।

ছেলে সন্তান চাওয়ার এই প্রবণতার কারণেই ভারতের একটি পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছিল। তাতে ছেলে সন্তান লাভের টিপস দেয়া হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, পশ্চিম দিকে মুখ করে শোয়াসহ সপ্তাহে নির্দিষ্ট কয়েক দিনে স্বামী-স্ত্রীকে মিলিতে হওয়ার কথাও বলা হয়েছিল।

ছেলে সন্তান চাওয়ার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি পাঞ্জাব ও হরিয়ানাতে, সবচেয়ে কম মেঘালয়ে।

আরো খবর »