চট্টগ্রাম টেস্ট নিয়ে পরিকল্পনা সাজাচ্ছে ম্যানেজম্যান্ট

Feature Image

স্বাধীনবাংলা২৪.কম

ক্রীড়া ডেস্ক: ১৬ জনের টেস্ট স্কোয়াডে ছয় জনই স্পিনার। আগের থেকেই ছিলেন তাইজুল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাঈম হাসান। পরবতীর্তে যোগ দেন সানজামুল ইসলাম ও তানভীর হায়দার। স্কোয়াডে সবশেষ সৈন্য আব্দুর রাজ্জাক।

দলে জেনুইন স্পিনার ছয়জন। নিয়মিত বিরতিতে হাতে ঘুরিয়ে থাকেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুমিনুল হক ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। সব মিলিয়ে স্পিন করতে সক্ষম এমন ক্রিকেটার রয়েছেন নয় জন। তবে মূল আলোচনায় রয়েছে ওই ছয় স্পিনারই।

দল গঠনে নিশ্চিতভাবেই কঠিন পরীক্ষার মুখোমুখি হতে হচ্ছে টিম ম্যানেজম্যান্টকে। তবে জয়ের লক্ষ্যে থাকা বাংলাদেশ যেকোনো সিদ্ধান্ত একটি নির্দিষ্ট প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়েই নিবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচক। দলের জন্য যাকে বেশি কার্যকর তাকে নিয়েই একাদশ সাজাবেন।

প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন আজ চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বলেছেন,‘দলের জন্য যেটা সবচেয়ে বেশি দরকার হবে, সেটি করা হবে। এই টেস্ট আমরা জিততে চাই। ভালো ক্রিকেট খেলতে চাই। ওভাবেই চিন্তা করা হবে।’

পরশু থেকে শুরু হতে যাওয়া দলে কারা খেলবেন তা এখনও নিশ্চিত নয়। আজকের ঐচ্ছিক অনুশীলনে দলের সাথে থাকা ছয় স্পিনারই নেটে ঘাম ঝরিয়েছেন। মেহেদী হাসান মিরাজ ও নাঈম হাসান আলাদা কাজ করেছেন। দলে আসা আব্দুর রাজ্জাকও দীর্ঘক্ষণ টেনে বোলিং করেছেন। দলের বিশেষ এক সূত্র নিশ্চিত করেছে, এ তিন জনকে নিয়েই পরিকল্পনা সাজাচ্ছে টিম ম্যানেজম্যান্ট।

দল গঠন নিয়ে প্রধান নির্বাচক,‘একদিন বাকি আছে টেস্ট ম্যাচের, বলা যাবে না কে খেলবে। কাল অনুশীলন সেশন শেষে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এটির একটি প্রক্রিয়া আছে। টিম ম্যানেজমেন্টের একটা চিন্তা ভাবনা আছে, পরিকল্পনা আছে। সেসব নিয়ে আমরা বসব। তারপর ঠিক করব।’

স্পিনারদের নিয়ে মিনহাজুল আবেদীন বলেছেন,‘সানজামুল একদম অনভিজ্ঞ, একটি টেস্টও খেলেনি। তাইজুলের ফর্মটাও চিন্তা করতে হবে, দক্ষিণ আফ্রিকায় একটি টেস্ট খেলেছে। অত ভালো করেনি। সেই হিসেবে ফর্মের কথা চিন্তা করেই আমরা বাড়তি স্পিনার নিয়েছি। যার পজিশন ভালো থাকবে আগামীকাল, তাকে নিয়েই চিন্তা করব।’

স্বাধীনবাংলা২৪.কম/এমআর

আরো খবর »