পৌর এ্যাসিসোয়েশনের আনন্দোলনে নাগরিক সেবা থমকে গেছে

Feature Image

 

বিশেষ প্রতিনিধি : সরকারি কোষাগার থেকে বেতন ভাতার গ্রাইচুটি এবং পেনশন দাবিতে টানা কর্মসূচির ৩য় দিনে পৌর কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়েছে।

৩২৭ টি পৌর সভার কার্যত সকল কার্যক্রম স্থবির হওয়ায় নাগরিক সকল সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়ে পড়েছে।
কেন্দ্রের দাবির সাথে একাত্বতা প্রকাশ করে কু্ষ্টিয়া জেলার ৫ টি পৌর সভার কর্মকর্তা- কর্মাচারীগণ নাগাতাল কর্মবিরতি করছে। এরই মাঝে আনন্দোলন কারী কর্মকর্তা-কর্মাচারীগণ কেন্দের নির্দেশে সকল নাগরিক সেবা বন্ধকরে দিয়েছেন। ফলে পৌরবাসী সাধারন সেবা জন্ম-মৃত্যু সনদ, পয়ো নিস্কাষণ পৌর বিদুৎ সহ নানাবিধ সুজগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

এদিকে কু্ষ্টিয়া কুমারখালী পৌরসভার সকল কর্মকর্তা- কর্মাচারীগণ ৩য় দিনের মতো নাগাতাল কর্মবিরতি করছে। সকালে পৌর ভবনে তালা ঝুলিয়ে বুকে বেতন ভাতার দাবিতে লিখে আনন্দলে যোগদেন। কু্ষ্টিয়া পৌর এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুল হালিমের সভাপতিত্বে সকাল ১০ টায় এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন এ্যাসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদন মনিরুজ্জামান, সিনিয়র সাধারন সম্পাদক আঃ হালিম প্রমুখও। সমাবেশের পরে ব্যানার সহ পৌরসভা থেকে মিছিল সহকারে উপজেলা চত্বর প্রদক্ষিণ করে পৌর ভবনে এসে শেষ হয়।

একঐ কর্মসুচী কু্ষ্টিয়া সদর,কুমারখালী, খোকসা, ভেড়ামারা ও মিরপুর পৌরসভা সকল কর্মকর্তা -কর্মাচারীগণ টানা ৩য় দিনের মতো অব্যাহত রয়েছে।

আরো খবর »