তরুণী আত্মহত্যার জন্য বহুতলের কার্নিশে উঠলো , অতঃপর…!

Feature Image

পুরো ঘটনাটাই যেন সিনেমার মতো। নায়িকা দাঁড়িয়ে রয়েছেন এক নির্মীয়মাণ বহুতলের কার্নিশে। নীচে পুলিশ-দমকল বাহিনী ও মিডিয়ার সঙ্গে শ্বাসরুদ্ধ জনতা। তবে সিনেমা নয়, এমন এক বাস্তব ঘটনার সাক্ষী রইলেন ভারতের মুম্বাইয়ের ওয়াদালা অঞ্চলের বেশ কিছু মানুষ।

খবর অনুযায়ী, গত শুক্রবার ওয়াদালা অঞ্চলের এক নির্মীয়মাণ বহুতলের কার্নিশে বিপজ্জনক ভাবে দাঁড়িয়ে ছিলেন ৩২ বছরের প্রিয়াঙ্কা জেঠালাল মারু। প্রায় ৬ ঘণ্টা ধরে তিনি ওপর থেকে লাফানোর হুমকি দিতে থাকেন। বাড়তে থাকে ভিড়। খবর যায় পুলিশ ও দমকলে।

৬ ঘণ্টা ধরে প্রিয়াঙ্কাকে নামিয়ে আনার চেষ্টা চলে। ২৫ জন পুলিশ ও ১৫ জন দমকল কর্মী ক্রমাগত চেষ্টা চালিয়ে যান তাকে নামিয়ে আনার। বেশ কয়েকবার ব্যর্থ চেষ্টার পরে পুলিশ খবর দেয় ইন্সপেক্টর শালিনী শর্মাকে। শালিনী অপহৃত উদ্ধার ও বিশেষ পরিস্থিতির মোকাবিলার জন্য বিশেষ প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত।

শালিনী ধীরে ধীরে প্রিয়ঙ্কার সঙ্গে কথা বলতে শুরু করেন। তিনি প্রিয়াঙ্কাকে জানান, একটা আইনি কাগজে তাকে সই করতে হবে। এই অজুহাতে তিনি প্রিয়াঙ্কার কাছে যান এবং তাকে জাপটে ধরেন ও নীচে নামিয়ে আনেন।

এরপর প্রিয়াঙ্কাকে পুলিশ তার বাবা-মা’র হাতে তুলে দেয়। জানা যায়, অবিবাহিত প্রিয়াঙ্কা মানসিক চাপের কারণেই এমনটা করেছেন।

আরো খবর »