সরকার চায় জীবন্ত, সক্রিয় ও গতিশীল গণমাধ্যম

Feature Image

ঢাকা : তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার পোষা কিংবা হলুদ সাংবাদিকতা চায় না, সমালোচনাকে ভয় পায় না। সরকার চায় জীবন্ত, সক্রিয় ও গতিশীল গণমাধ্যম।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।
ইউনিয়নের সভাপতি শাবান মাহমুদের সভাপতিত্বে প্রধানমন্ত্রীর তথ্যবিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, মহাসচিব ওমর ফারুক প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

গণমাধ্যম কর্মীদের জন্য চারটি বিষয় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সাংবিধানিক অধিকার হিসেবে আইন অনুযায়ী স্বাধীন সাংবাদিকতা, চাকরির নিরাপত্তা, অর্থনৈতিক নিরাপত্তা ও কল্যাণ গণমাধ্যম কর্মীদের জন্য অপরিহার্য।
হাসানুল হক ইনু বলেন, এ চারটি বিষয় নিশ্চিত করার জন্যই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ১৯৭৪ সালে এ বিষয়ে আইন প্রণয়ন করেছিলেন। কিন্তু বেগম খালেদা জিয়ার আমলে আইনটি বাতিল করে গণমাধ্যমকর্মীদেরকে মজুর হিসেবে গণ্য করা হয়। শেখ হাসিনার সরকার ইলেক্ট্রনিক গণমাধ্যমকর্মীদের অন্তর্ভূক্ত করে আইনটিকে হালনাগাদ করার কাজে হাত দিয়েছে।

এর আগে তথ্যমন্ত্রী সকালে রাজধানীর কাকরাইলে বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট সেমিনার হলে কিশোর লেখিকা নানজিবা খান রচিত ‘অটিস্টিক শিশুরা কেমন হয়’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন। এ সময়ে সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর উপস্থিত ছিলেন।
কিশোর লেখিকা নানজিবা খানের দু’বছরের গবেষণাপ্রসূত ৯৬ পৃষ্ঠার এ বইটি প্রকাশ করেছে অন্বেষা প্রকাশন।

আরো খবর »