ধারাবাহিকতা ফিরিয়ে আনতে চান ওয়ালশ

Feature Image

ঢাকা : আগামী মাসে শ্রীলংকা অনুষ্ঠেয় নিদাহাস টি-২০ ত্রিদেশীয় ট্রফিতে ভালো খেলার ধারাবাহিকতা ফিরিয়ে আনতে চান বাংলাদেশের অন্তর্বর্তীকালীন কোচ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি পেসার কোর্টনি ওয়ালশ।
তিনি বলেন, ‘যদি আমরা ধারাবাহিকতা পেয়ে যাই, তবে আমাদের জন্যই ভালো হবে। ধারাবাহিকতা ফিরিয়ে আনা আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। আমরা এই ধারাবাহিকতার উপর জোড় দিব।’

নিদাহাস ট্রফি সামনে রেখে চলছে ওয়ালশের অধীনে চলছে জাতীয় দলের ক্যাম্প। প্রিমিয়ার লিগের খেলা না থাকায় স্কোয়াডে ডাক পাওয়া ক্রিকেটাররা যোগ দেন হেড কোচ কোর্টনি ওয়ালশের ক্যাম্পে। দায়িত্ব নেয়ার পর ওয়ালশ জানান, ‘ঘরের মাঠে বাজে খেলার পর ঘুরে দাঁড়ানোটা চ্যালেঞ্জিং। তবে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশের লক্ষ্য থাকবে ভালো ক্রিকেট খেলা। সম্প্রতি খেলা সিরিজে বোলাররা ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারেনি। তাদের নিয়ে আমাদের যা প্রত্যাশা ছিলো, তাও পূরণ হয়নি। তাই ক্যাম্পে বোলারদের নিয়ে আলাদাভাবে কাজ করছি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ক্রিকেটাররা সেরাটা দিয়ে খেলতে পারেনি। এখান থেকে ঘুরে দাঁড়ানোটাও বেশ চ্যালেঞ্জিং। তারপরও ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশের লক্ষ্য থাকবে ভালো ক্রিকেট খেলা।’

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়কের দ্বায়িত্ব পাবার পর ওয়ালশ বলেন, ‘এটি একটি অন্তর্বর্তীকালীন দায়িত্ব। গত কয়েকটি সিরিজ আমরা ছিলাম প্রধান কোচবিহীন। আমাকে এই কাজটি করার জন্য বলা হয়েছে। অনেক বেশি আলোচনার কিছু ছিলো না। আমি এখানে আছি। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সেরাটার জন্য চেষ্টা করে যাবো।’

কাজটাকে কেবলই পেশাদারিত্বের মোড়কে রাখতে চান না এ ক্যারিবিয়ান। জাতীয় দলের কোচের ভূমিকা হওয়া দরকার পিতার মতো বলে মনে করেন তিনি, ‘তাদের আত্মবিশ্বাস যোগানোর জন্য ভূমিকাটা হওয়া দরকার পিতার মতো। আমাদের বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে যে, অফফর্ম থেকে বেরিয়ে আসতে সবাই অতিরিক্ত কাজ করতে প্রস্তত। সবাইকে এটাই ভাবতে শেখাতে হবে যে, তাদের দলের জন্য ভূমিকা রাখতে হবে। যাতে তারা দলের জন্য খেলে এবং দলের চাহিদা পূরণ করে। আর এটাই হবে আমার নীতি।’

আরো খবর »