মানিকগঞ্জে নিখোঁজের ৭ দিন পর ৩ কিশোরী উদ্ধার ১ জন আটক

Feature Image

মানিকগঞ্জ থেকে জালাল উদ্দিন ভিকুঃ  মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার বিষ্ণুপুর এলাকা থেকে নিখোঁজের ৭ দিন পর মুন্সিগঞ্জ জেলার মুক্তারপুর এলাকার এক বাড়ি থেকে স্কুল পড়–য়া তিন কিশোরী উদ্ধার ও সন্দেহ জনক এক মহিলাকে আটক করেছে দৌলতপুর থানা পুলিশ ।

বিষ্ণুপুর গ্রামের আব্দুস ছালাম জানায়-আমার মেয়ে বিষ্ণুপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী শারমীন আক্তার (১২) একই স্কুলের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রী বিষ্ণুপুর গ্রামের আসকর আলীর মেয়ে বন্যা আক্তার (১২),মাদ্রাসা মক্তবের ছাত্রী বিষ্ণুপুর গ্রামের মেয়ে সাদিয়া আক্তার (১২) গত ২২ ফের্রুয়ারী স্কুলে যাওয়ার কথা বলে তারা বাড়ি থেকে বেড় হয় । আমার মেয়ে শারমীন ও অন্য ২ জনের কেউ সন্ধা পর্যন্ত বাড়িতে ফিরে না এলে আত্মীস্বজনের বাড়ি ও বিভিন্ন স্থানে অনেক খোজাখোজির করি । পরে কোথাও না পেয়ে গত ২৬ ফের্রুয়ারী নিখোঁজ হওয়ার একটি সাধারন ডায়রী করি ।

এবিষয়ে দৌলতপুর থানা অফিসার ইনচার্জ সুনীল কুমার কর্মকার জানান- বিষ্ণুপুর গ্রামের আব্দুস ছালাম বাদী হয়ে শারমীন আক্তার, বন্যা আক্তার , সাদিয়া আক্তার নিখোঁজ হওয়ায় ২৬ ফের্রুয়ারী রাতে একটি অভিযোগ দিলে । তাৎক্ষনিক ভাবে ওসি(তদন্ত) আনিছুল হক ও এস.আই ফরহাদ হোসেনকে নিখোঁজ তিনকে উদ্ধারের দায়িত্ব দিলে তারা বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায় ।

পরে ২৮ ফের্রুয়ারী বুধবার রাতে মুন্সিগঞ্জ জেলার মুক্তারপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে এক বাড়ি থেকে তিন কিশোরীকে উদ্ধার করেছে এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সন্দেহ জনক ঐ বাড়ির বাড়াটিয়া বন্যা আক্তারের চাচী আখি বেগম নামের এক মহিলাকে আটক করা হয়েছে । উদ্ধারকৃত তিন কিশোরী ও বন্যা আক্তারের কাকি আখি বেগম পুলিশ হেফাজতে রয়েছে । পুলিশ সুপার মহোদয়ের সাথে আলাপ করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে ।

আরো খবর »