ফিনল্যান্ডবাসী বিশ্বের সবচেয়ে সুখী মানুষ

Feature Image

বাল্টিক সাগরের তীরবর্তী দেশ ফিনল্যান্ড। ৩ লাখ ৩৮ হাজার বর্গ কিলোমিটারের দেশটিতে ৫৫ লাখ মানুষের বসবাস। নর্ডিক রাষ্ট্র হিসেবেই পরিচিত উত্তর ইউরোপের এই দেশ। তবে বিশ্বের সবচেয়ে সুখী মানুষের দেশ হিসেবে এবার স্বীকৃতি পেল ফিনল্যান্ড। নরওয়েকে পেছনে ফেলে জাতিসংঘের সুখী দেশের তালিকায় এবার তারা শীর্ষে উঠে এসেছে।

জাতিসংঘের প্রকাশিত ১৫৬ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ১১৫তম। অর্থ-বিত্তে ধনী হলেও স্থূলতা ও বিষণ্নতায় আক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রের সুখের জীবনের অবনমন ঘটেছে। যুক্তরাষ্ট্র গতবার ছিল চতুর্দশ স্থানে, এবার নেমে গেছে অষ্টাদশে। যুক্তরাজ্য ১৯তম, চীন রয়েছে ৮৬তম স্থানে।

জাতিসংঘের সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট সলিউশনস নেটওয়ার্কের (এসডিএসএন) বার্ষিক প্রতিবেদনে স্ক্যান্ডেনেভিয়ান দেশটির সুখের চিত্র ফুটে ওঠে। বুধবার প্রকাশিত এ তালিকায় সবচেয়ে অসুখী দেশ হিসেবে সবার শেষে স্থান পেয়েছে আফ্রিকার দেশ বুরুন্ডি।

মাথাপিছু আয়, সামাজিক নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য ও গড় আয়ু, সামাজিক স্বাধীনতা এবং দুর্নীতির মাত্রার মতো কয়েকটি মানদণ্ডের ভিত্তিতে প্রতি বছর এ তালিকা করছে এসডিএসএন।

এবারের তালিকায় শীর্ষে থাকা ফিনল্যান্ড পয়েন্ট কুড়িয়েছে ৭ দশমিক ৬৩। সামাজিক নিরাপত্তা, শিশুদের প্রতি যত্ন, মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিনা খরচে চিকিৎসার মতো বিষয়গুলো তাদের পয়েন্ট বাড়িয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফিনল্যান্ডে পাড়ি জমানো ব্রায়ানা ওয়েনস বলেন, আমি তো অন্য আমেরিকানদের মজা করে বলি- আমরা যে আমেরিকার স্বপ্ন দেখি, তা আছে এই ফিনল্যান্ডে। গত বছরের তালিকায় দেশটি ছিল পাঁচ নম্বরে।

এবারের তালিকায় তাদের পরের স্থানগুলোতে রয়েছে- ডেনমার্ক, আইসল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, কানাডা, নিউজিল্যান্ড, সুইডেন ও অস্ট্রেলিয়া।

বাংলাদেশের পয়েন্ট ৪ দশমিক ৫০। তালিকায় দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে পাকিস্তান রয়েছে ৭৫তম স্থানে (পয়েন্ট ৫ দশমিক ৪৭), ভুটান ৯৭তম স্থানে (৫ দশমিক ০৮), নেপাল ১০৮তম স্থানে (৪ দশমিক ৮৮ পয়েন্ট), শ্রীলংকা ১১৬তম স্থানে (৪ দশমিক ৪৭ পয়েন্ট), ভারত ১৩৩তম স্থানে (৪ দশমিক ১৯ পয়েন্ট), মিয়ানমার ১৩০তম স্থানে (৪ দশমিক ৩০ পয়েন্ট)।

নিউইয়র্কের কলাম্বিয়া ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক জেফরি সাচ বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে আমরা আসলেই একটি সামাজিক সমস্যায় রয়েছি- এখানে বৈষম্য বাড়ছে, বিশ্বাস কমছে। সরকারের ওপর নাগরিকদের আস্থা এখন সবচেয়ে কম।

জাতিসংঘ এই প্রথমবারের মতো জানিয়েছে, তারা প্রতিটি দেশের অভিবাসীদের সুখের মাত্রা নিয়ে জরিপ চালিয়েছে। ফিনল্যান্ডে সেই মাত্রা সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে।

ডেনমার্কের হ্যাপিনেস রিসার্চ ইনস্টিটিউটের মেইক উইকিং বলেন, সুখের দেশের তালিকায় ফিনল্যান্ড সবার ওপরে রয়েছে। এটি খুবই উল্লেখযোগ্য ঘটনা। দেশটির মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) পার্শ্ববর্তী নরডিক দেশগুলোর তুলনায় কম। যুক্তরাষ্ট্রের তুলনায় যা আরও কম। তারা তাদের সম্পদ কল্যাণমূলক কাজে বেশি ব্যবহার করতে পারছে।

আরো খবর »