বশেমুরবিপ্রবি উপাচার্যর বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদ মিথ্যা

Feature Image

এস এম সাব্বির, গোপালগঞ্জ:
গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বশেমুরবিপ্রবির উপাচার্যর প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত যৌন কেলেঙ্কারীর সংবাদ মিথ্যা বলে জানিয়েছেন আফরিদা খাতুন ঝিলিক (১৯)।
মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানান কথিত যৌন হয়রানীর অভিযোগকারী ঝিলিক।

তিনি বলেন, আমি এতিম বিধায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি প্রভাবশালী মহল বিভিন্ন ভয়-ভীতি দেখিয়ে আমাকে দিয়ে সুনামধন্য ভিসি প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন স্যারের বিরুদ্ধে নোংরা অপবাদ দেওয়াতে বাধ্য করেছে। যা পরবর্তীতে কথতি সাংবাদিকদের মাধ্যেেগাপালগঞ্জে ম বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রকাশ করে প্রভাবশালী মহল।
এতে করে বশেমুরবিপ্রবির ভিসির সম্মানহানী ঘটেছে। এই প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

ঝিলিক আরো জানান, ২০১৬ সালে অনাথ আশ্রম থেকে তার বিয়ে হয়। মানবতায় তার স্বামী মো. রুবেল এবং ঝিলিককে দৈনিক দিনমজুর হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কাজ করার সুযোগ করেদেন ভিসি। ঝিলিক সন্তান ও স্বামীকে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পাশ্ববর্তী সোনাকুড় গ্রামে ভাড়া বাসাই খুব সুখে আছেন।
এব্যাপারে উপাচার্যর প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন বলেন, কেবা কারা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছে জানা নেই। বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদান করা থেকে প্রতিনিয়িত প্রতিষ্ঠানের সুনাম রক্ষায় উন্নয়ন কাজ করে যাচ্ছি।

আরো খবর »