শারীরিক সম্পর্কে রাজি হলেই মিলবে লোন, মহিলাকে প্রস্তাব ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের

Feature Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: শারীরিক সম্পর্কে রাজি হলেই মিলবে লোন! কৃষকের স্ত্রীকে এমন প্রস্তাব খোদ ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের৷ রাজি না হওয়ায় পিওনের মাধ্যমেও বোঝানোর চেষ্টা করা হয় তাঁকে৷ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের একটি এলাকায়। অভিযোগ উঠেছে দেশটির বুলধানার এক রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের ম্যানেজার ও পিওনের বিরুদ্ধে৷ কৃষিঋণ নিতে গিয়েও যে এমন প্রস্তাবের মুখোমুখি হতে হবে, তা ভাবতেও পারেননি ওই মহিলা৷ ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের ফোনালাপ রেকর্ড করেন তিনি৷ স্থানীয় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন কৃষক-পত্নী৷ ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই গা ঢাকা দিয়েছে অভিযুক্তরা৷

দিনকয়েক আগে ওই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে কৃষিঋণের আবেদন করেন মহারাষ্ট্রের মহিলা৷ কৃষকদের জন্য রাজ্য সরকারের বিশেষ প্রকল্পেই ঋণ চেয়েছিলেন তিনি৷ লোনের আবেদনপত্রের সঙ্গে ব্যাঙ্কে কাগজপত্র জমা দেন মহিলা৷ কিন্তু আবেদনকারীর অভিযোগ, “বারবার ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের কাছে গিয়েও লোন পাচ্ছিলেন না তিনি৷ কখনও কাগজ জমা দেওয়ার প্রমাণ দিতে সমস্যা তো অন্য কোনও অছিলায় ঋণ দেওয়া হচ্ছিল না তাঁকে৷”

ব্যাঙ্কে জমা দেওয়া কাগজপত্র থেকে তাঁর ফোন নম্বর ও ঠিকানা জোগাড় করেন ম্যানেজার রাজেশ হিভাসে৷ কৃষক-পত্নীর দাবি, ব্যাঙ্ক ম্যানেজার ফোন করেন তাঁকে৷ ম্যানেজার ফোনে অশ্লীল ভাষায় কথা বলে তাঁর সঙ্গে৷ লোন পেতে গেলে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করার প্রস্তাবও দেয় ব্যাঙ্ক ম্যানেজার হিভাসে৷ প্রস্তাবে নারাজ হন মহিলা৷ ফোনে প্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ হলেও, থেমে থাকেনি সে৷ ব্যাঙ্কের এক পিওনকে কৃষকের বাড়িতে পাঠায় ম্যানেজার৷ পিওন মহিলাকে জানায়, “শারীরিক সম্পর্কের পরিবর্তে লোনের পাশাপাশি কৃষকদের জন্য বিশেষ প্যাকেজে আর্থিক সাহায্যের বন্দোবস্ত করে দেবে হিভাসে৷”

ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের ফোনালাপ রেকর্ড করেছিলেন মহিলা৷ স্থানীয় থানায় তা জমাও দেন তিনি৷ ব্যাঙ্ক ম্যানেজার ও পিওনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন মহিলা৷ মহিলা থানার দ্বারস্থ হওয়ার পরই গা ঢাকা দিয়েছে দু’জনেই৷ তাদের খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ৷

আরো খবর »