ফাঁস হল আসল কাহিনী মৃত্যুর আগে যা ঘটেছিল তাজিনের সাথে, জানালেন সেই মেকআপ আর্টিস্ট (ভিডিও)

Feature Image

বাংলাদেশের জনপ্রিয় একজন টিভি অভিনেত্রী এবং উপস্থাপিকা তাজিন আহমেদ। গতকাল মঙ্গল্ববার হঠাৎ করেই হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে চলে গেছেন না ফেরার দেশে। তবে তার মৃত্যুর পর ঘটছে একের পর এক অনাকাংখিত ঘটনা। তবে এবার তারই দুজন সহকর্মী জানালেন মৃত্যুর আগে তাজিনের শেষ সময় কিভাবে কেটেছে।

সেই বিতর্কে নতুন মাত্রা যোগ করেছে অভিনেত্রী হোমায়রা হিমুর ফেসবুক থেকে লাইভে আসা একটি ভিডিও।

ফেসবুক লাইভের ওই ভিডিওতে হিমু জানিয়েছেন, তাজিন আহমেদের মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কিছুদিন সর্বদা পাশে থেকেছেন তিনি। এ ছাড়া গত তিন বছর থেকে মৃত্যুর আগ মুহূর্ত পর্যন্ত তাজিন আহমেদের দেখভাল করেছেন মেকাপ আর্টিস্ট মিহির মহন।

এ সময় মিহির মহন ভিডিওতে জানান, অনেকেই বলছেন দ্বিতীয় স্বামীর সঙ্গেও তাজিনের ডিভোর্স হয়েছে। কিন্তু তাজিনের সঙ্গে তার দ্বিতীয় স্বামীর ডিভোর্স হয়নি। তবে সম্পর্ক ভালো ছিল না। মৃত্যুর দিন সকালেও তাজিন তার স্বামীকে বারবার ফোন দিতে বলেছিলেন। কিন্তু মহন বারবার ফোন করেও তাকে পায়নি। তাজিনের নম্বর সে ব্লক করে রেখেছিল।

মহন বলেন, ‘তাজিন আপু আমাকে খুব ভালোবাসতেন। আমার জন্য তিনি অনেক কষ্ট করেছেন। ছন্দ নামের এক গায়িকার সঙ্গে দুলাভাইয়ের [তাজিনের স্বামী] পরকিয়া ছিল। ওই মেয়েটি যখন দুলাভাইয়ের নামে মামলা করেছিল তখন আপু দুলাভাইকে বাঁচাতে সিলেট আমার বোনের বাসায় আশ্রয় নিয়েছিল। দুলাভাইয়েরে এমন কাজের পরও আপুনি তাকে খুব ভালোবাতেন। তার জন্যই তিনি আরও অনেক অসুস্থ হয়ে পড়েন।’

এ সময়টায় অভিনেতা শহীদুজ্জামান সেলিম ও রোজী সিদ্দিকী দম্পত্তি তাজিনের পাশে ছিলেন বলেও জানান মিহির।

এ ছাড়া হুমাইরা হিমু বলেন, ‘অধিকাংশ পত্রিকায় তাজিন আপুনিকে নিয়ে মিথ্যে খবর প্রকাশিত হচ্ছে। এখন মিডিয়ার অনেক মানুষ তাজিন আপুর বন্ধু দাবি করে নানা রকম কথা বলছেন। কিন্তু তিনি জীবীত থাকা অবস্থায় কেউ তার খবর রাখেনি। আর যে দাঁড়িয়েছে সর্বদা তার সঙ্গে থেকেছেন তিনি মেকাপ আর্টিস্ট মিহির মহন। অথচ কোথাও কেউ তার নামটিও বলছেন না।’

এই মিহির মহন শোবিজের অনেক সেলিব্রেটি তারকাদেরই মেকাপ করে দিয়েছেন। তাজিন তাকে নিজের ছেলের মতো করেই দেখতেন বলে দাবি করেছেন হিমু। এই ভিডিওতে তাজিন সম্পর্কে অনেক নতুন তথ্য উঠে এসেছে। মৃত্যুর দিন তাজিনকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া থেকে শুরু করে মৃত্যু পর্যন্ত সঙ্গে ছিলেন মহন। তিনি সেই দিনের ঘটনাও তুলে ধরেছেন এই ভিডিও বার্তায়।

উল্লেখ্য গত ২২ মে, উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টরের রিজেন্ট হাসপাতালে হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তাজিন। মাত্র ৪৩ বছর বয়সে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চিরতরে চলে গেছেন অমলিন হাসিমাখা এই অভিনেত্রী। নব্বই দশকের টেলিভিশন নাটকগুলোতে দাপিয়ে অভিনয় করেছিলেন তিনি। এরপর ২০১০ সালের পর থেকে টেলিভিশনে নাটকে তার উপস্থিতি অনেকখানি কমতে শুরু করে।

আরো খবর »