রাস্তার ধারে পড়ে থাকা কে এই তরুণী জানেন?

Feature Image

রাজশাহীর পবা উপজেলার দারুসা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অজ্ঞান অবস্থায় ভর্তি হওয়া সেই তরুণীর পরিচয় দু’দিনেও মেলেনি। গত সোমবার সকালে তাকে দারুসা বাজারের কাছে রাস্তার ধারে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা হাসপাতালে ভর্তি করে।

ভর্তি হওয়ার কিছুক্ষণ পর জ্ঞান ফিরলে ওই তরুণী নিজের নাম রানি বলে জানান। বাবার নাম বলেন- মিলন। বাড়ি নওহাটা ও নেপালপাড়া। এরপর আবার তিনি অজ্ঞান হয়ে যান। তারপর আর কোন কথা বলতে পারেননি তিনি।

স্থানীয়রা জানান, ওই তরুণীকে রাস্তার ধারে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এরপর নিজেকে রানি বলে পরিচয় দেন। তারপর আর কোন কথা বলতে পারেননি। এরপর চিকিৎসকরা কথা বলানোর চেষ্টা করলে তিনি আগের কথায় পুনরায় বলেন।

পবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. আব্দুল হানান বলেন, তাকে স্থানীয়রা ভর্তি করে রেখে যায়। পরিচয় পাওয়া যায়নি। কথাও বলতে পারছে না। কি কারণে অজ্ঞান হয়েছিল এমন প্রশ্ন করলে ডাক্তার বলেন, সেটি আমি জানি না।

তার শারীরিক অবস্থা কেমন তাও ডাক্তার জানাতে পারেনি। এ বিষয়ে কর্ণহার থানার ওসি সেলিম বাদশা বলেন, মেয়েটির পরিচয় খুঁজে বের করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

তিনি নিজের যে পরিচয় দিয়েছিলেন তা মিলছে না। এ নামে এলাকায় কেউ নেই। বিভিন্ন থানায় ছবি পাঠানো হয়েছে। সুস্থ হলে অজ্ঞান হওয়ার প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

আরো খবর »