জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন…

Feature Image

কুষ্টিয়া জেলার, কুমারখালী থানার, রসুলপুর গ্রামের মোঃ বারিক(৫৫) বিশ্বাসের (পিতা-মৃত শফিউদ্দিন খোকা) ছেলে মোঃ আহাদ গুরুতর অসুস্থ। ছেলেটির হার্ট ব্লক হয়ে গেছে, লিভার ফুটা হয়ে গেছে এবং কিডনির সমস্যাসহ নানাবিধ সমস্যায় ছেলেটি আজ মৃত্যুশয্যায়। হয়তো আমাদের এ পৃথিবী থেকে আরো একটি ছোট্ট কিশোর ছেলে মারা যাবে, আমরা কেউই হয়ত সে খোঁজ রাখবোনা বলে মুঠোফোনে জানায়, ছেলেটির বাবা।

ছেলেটির পারিবারিক অবস্থা খুবই শোচনীয়। দরিদ্র পিতার পক্ষে কোনোভাবেই ছেলেটির চিকিৎসা করা সম্ভব না। ছেলেটির বাবা মায়ের চোখের পানিও শুকিয়ে গেছে অসুস্থ ছেলের জন্য কাঁদতে কাঁদতে। ছেলেটির দিকে তারা তাকাতে পারেনা। অসুস্থ ছেলেটিকে পাশে নিয়ে অঝোরে কান্না করতে থাকে। কারণ তাদের সামনেই মারা যাচ্ছে তাদের সন্তান মোঃআহাদ। একজন পিতার কাছে এটাই সব থেকে কষ্টের যে, নিজের সন্তানকে নিজের চোখে মরতে দেখছে। কিন্তু নিজেদের সন্তানকে বাঁচানোর মতো কোন সামর্থ্য নেই এ অসহায় বাবা-মার।

এর আগে ১৫ সালের ১৫ জুলাই মোহাম্মদ বারিক বিশ্বাসের অন্য একটি ছেলে ৬ বছর বয়সে মারা যায়। আর বর্তমানের তার ১৫ বছর বয়সী একমাত্র ছেলেটি আজ মৃত্যুর পথে। এই শেষ বয়সে এসে শেষ সম্বল টুকু একমাত্র ছেলেকে হারাতে বসেছে মোঃবারিক বিশ্বাসের পরিবার।

ছেলেটি বর্তমানে কুমারখালী সদর হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় চিকিৎসাধীন আছে। আপনারা যে যেভাবে পারেন ছেলেটির পরিবারকে সাহায্য করুন। হয়তো আপনার অল্প কিছু সাহায্যর জন্য বেঁচে যেতে পারে একটি ছোট্ট কিশোরের জীবন।

ছেলেটির বাবার মোবাইল নাম্বার- +88 0 1910472184 ( ০১৯০৪৭২১৮৪)

আরো খবর »